গবেষণা প্রকাশ হলে শিক্ষার্থীদের প্রণোদনা দেবেন রাবি শিক্ষক

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৪, ২০২২; সময়: ২:১৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষার্থীদের কোনো গবেষণা প্রকাশ হলে নিজ বেতন থেকে প্রণোদনা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফিশারিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. ইয়ামিন হোসেন। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) এক ফেসবুক পোস্টে বিষয়টি জানান তিনি।

গবেষণায় প্রণোদনা (ইনসেনটিভ) শিরোনামের ওই পোস্টে অধ্যাপক ইয়ামিন হোসেন লেখেন, ‘আপনি গবেষণা করে যত পাবলিকেশনই করুন না এদেশে হাততালিও পাবেন না! কিন্তু আমার ল্যাবে কেউ যদি পাবলিকেশন করেন, সিনিয়র অথর হিসেবে, আমার বেতনের টাকা থেকে ক্ষুদ্র আকারে হলেও প্রণোদনা দেবো ইনশাআল্লাহ!’

তিনি আরও লেখেন, কিউ ওয়ান মানের জার্নালে প্রকাশের জন্য ১০ হাজার, কিউ টু-তে ছয় হাজার, কিউ থ্রি-তে চার হাজার ও কিউ ফোর মানের জার্নালে প্রকাশ হলে দুই হাজার টাকা প্রণোদনা দেওয়া হবে। প্রতিটি সায়েন্টেফিক পেপারের জন্যে এই প্রণোদনা দেওয়া হবে বলে ফেসবুক পোস্টে উল্লেখ করেন এ রাবি অধ্যাপক।

এমন উদ্যোগের বিষয়ে জানতে চাইলে অধ্যাপক ইয়ামিন হোসেন বলেন, ‘বিশ্বের সব জায়গায় এ প্রণোদনা ব্যবস্থা চালু আছে। অথচ আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের গবেষণা প্রকাশ হলে উৎসাহটুকুও দেওয়া হয় না। তাই আমি ব্যক্তিগতভাবে ঘোষণা দিয়েছি কোনো শিক্ষার্থীর গবেষণা প্রকাশ পেলে আমার বেতন থেকে তাদের সম্মানী দেবো।’

অধ্যাপক ইয়ামিন হোসেনের ল্যাব থেকে গতবছর ৪২টি গবেষণাপত্র বের হয়েছে। স্কোপাসের গবেষণা তালিকায় রাবির অবস্থান দ্বিতীয়। তাতে এ অধ্যাপকের গবেষণা ছিল ৩৭টি।

অধ্যাপক ইয়ামিন হোসেন বলেন, যারা গবেষণা করে তারা অনেকেই নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। তাদের পরিশ্রমকে সম্মান জানানোর জন্যই তিনি এ প্রণোদনার ব্যবস্থা করবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে