বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্ব অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ উদযাপন

প্রকাশিত: নভেম্বর ২২, ২০২১; সময়: ৮:০৯ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : সারা বিশ্বজুড়ে অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স একটি জনস্বাস্থ্য সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। জীবাণুসমূহ অ্যান্টিবায়োটিকের প্রতি তাদের প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করেই চলেছে। জীবাণুগুলো অনেক রকম অ্যান্টিবায়োটিকের প্রতি প্রতিরোধী হয়ে পড়েছে। ফলে কম বা বেশি দামি সব ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক সংক্রমণ চিকিৎসায় অকার্যকর হয়ে পড়ছে। বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়।

এতে এ ধরনের রোগজীবাণু ব্যক্তির জন্য প্রাণঘাতী হওয়া ছাড়াও সমাজে নেতিবাচক প্রভাব তৈরি করতে পারে। তাই এ সংক্রান্ত সচেতনতা তৈরির বিকল্প নেই। সেই লক্ষ্যে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগে ১৮ থেকে ২৪ নভেম্বর, পুরো সপ্তাহব্যাপী উদযাপিত হচ্ছে ‘বিশ্ব অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ ২০২১।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ২২ নভেম্বর, ফার্মেসী বিভাগ আয়োজন করে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা এবং কুইজ প্রতিযোগিতা। শোভাযাত্রা সকাল ১০:৩০ মিনিটে বিভাগের ফার্মা বি ক্লাবের প্রেসিডেন্ট জ্যোতির্ময় বর্মন এবং ট্রেজারার শাম্মি আক্তারের নেতৃত্বে বিভাগের তালাইমারি ভবন থেকে শুরু হয়ে কাজলা ভবনে গিয়ে শেষ হয়।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. আশিক মোসাদ্দিক, রেজিস্ট্রার ড. মোঃ মহিউদ্দিন, ফার্মেসী বিভাগের কো-অর্ডিনেটর ড. তারান্নুম নাজ, বিভাগের শিক্ষকমণ্ডলী এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ। শোভাযাত্রায় প্রফেসর ড. আশিক মোসাদ্দিক বলেন, ‘অ্যান্টিবায়োটিকের অযাচিত ব্যবহারের ফলে আগামীতে মানুষের চিকিৎসা ক্ষেত্রে কতটা বিপর্যয় নেমে আসতে পারে তা সাধারণ মানুষের কাছে বোধগম্য করে তোলাটা সময়ের বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে গেছে।

বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় এর রেজিস্ট্রার মহোদয় ড. মোঃ মহিউদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, ‘মানুষকে সচেতন করতে শুধু অনুষ্ঠানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকলে চলবে না। সাধারণ মানুষজনদেরকেও সচেতন করতে হবে। আর সব মানুষের সচেতনতার জন্য ব্যাপক প্রচারণার বিকল্প নেই।

প্রফেসর ড. তারান্নুম নাজ তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন, ‘অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল ব্যবহারে কেবল মেডিকেল পেশায় নিয়োজিত মানুষজনদেরই সচেতন হতে হবে তা নয়; বরং সাধারণ মানুষের মনে উপলব্ধির জায়গাটি নিয়মতান্ত্রিকভাবে উন্নতি করে নিয়ে যৌক্তিক পদক্ষেপ নিতে হবে।

বক্তব্য শেষে ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আয়োজন করা হয় অ্যান্টিবায়োটিক এবং অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্স বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা। এছাড়া সপ্তাহব্যাপী রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন কলেজে সচেতনতা মূলক কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। বিভাগের ফার্মা বি ক্লাব, বিশ্ব অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ ২০২১’ কে কেন্দ্র করে প্রবন্ধ ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে সপ্তাহ জুড়ে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে