অসঙ্গতির পর রাবির বি ইউনিটের সংশোধিত ফল প্রকাশ

প্রকাশিত: অক্টোবর ১২, ২০২১; সময়: ৫:২৩ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার বি ইউনিটের প্রকাশিত ফলাফলে অসঙ্গতি দেখা দেওয়ায় সংশোধিত ফল প্রকাশিত হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১টার দিকে সংশোধিত ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানিয়েছে, সোববার দিবাগত রাত ১টার দিকে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এই ফলাফল প্রকাশ করা হয়। তবে কোনো নোটিশ ছাড়াই সকালে ওয়েবসাইট থেকে তা সরিয়ে নেওয়া হয়।

গত ৬ অক্টোবর ৩ গ্রুপে ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৫৬০টি আসনের বিপরীতে ৩১ হাজার ৫১৭ জন ভর্তিচ্ছু অংশ নেন। গত রাতে ভোররাতে ওই পরীক্ষার ফল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হলে নানা ভুল দেখা যায়।

অনেক ভর্তিচ্ছু অভিযোগ করেন, সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা দেওয়ার পরও তাদেরকে তালিকায় অনুপস্থিত দেখানো হয়েছে। পরবর্তীতে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ‘বি’ ইউনিটের গ্রুপ-২-এ পরীক্ষা দেওয়া ১ হাজার ৬২৭ শিক্ষার্থীকে একসঙ্গে অনুপস্থিত দেখানো হয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক বাবুল ইসলাম বলেন, ‘অন্যসব গ্রুপের রেজাল্ট ঠিকই আছে। তবে যেসব শিক্ষার্থী বাণিজ্য বিভাগের বাইরে থেকে গ্রুপ-২ তে পরীক্ষা দিয়েছেন, তাদের ক্ষেত্রে সমস্যা হয়েছে। মূলত ফল সাজাতে গিয়েই এই ভুল হয়েছে। আমরা দ্রুত তা সমাধান করে, নতুন করে ফল প্রকাশ করেছি।’

জানা গেছে, মঙ্গলবার বেলা ১টার দিকে সংশোধিত ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। তবে এরপর থেকে শিক্ষার্থীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়।

কয়েকজন শিক্ষার্থীর অভিযোগ, আগের ফলাফলে মেধাতালিকায় শুরুর দিকে তাদের নাম থাকলেও সংশোধিত তালিকায় অনেক পরে নাম এসেছে। সংশোধিত ফলে অনেকের প্রাপ্ত মার্ক আগের চেয়ে কম দেখানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসানের ফলাফল দেখা গেছে, সংশোধনের আগে তিনি ৭৯ দশমিক ২৫ মার্ক পেয়ে মেধাতালিকায় ৩১তম হন। সংশোধনের পরে তার প্রাপ্ত মার্ক দাঁড়ায় ৪৫ দশমিক ১০ এবং মেধাতালিকা অবস্থান ২ হাজার ৭৯৪তম। আবার অনেক শিক্ষার্থী উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, সংশোধনের পর তারা ‘প্রাপ্য নম্বর’ পেয়েছেন।

অপর শিক্ষার্থী জিন্নাত ফেরদৌস আরা বলেন, ‘যেমন পরীক্ষা দিয়েছিলাম প্রথম ফলাফলে সেরকম মার্ক দেখানো হয়নি। তবে, সংশোধিত ফলাফলে আমি আমার পরীক্ষা অনুযায়ী মার্ক পেয়েছি।’

শিক্ষার্থীদের উপস্থিত-অনুপস্থিত দেখানো, মার্ক কম-বেশি আসা- এসব বিষয়ে জানতে চাইলে ‘বি’ ইউনিটের চিফ কো-অর্ডিনেটর অধ্যাপক জিন্নাত আরা বলেন, ‘আমাদের কিছু টেকনিক্যাল সমস্যা হয়েছিল। যে কারণে ভুলভাবে ফলাফল দেখানো হচ্ছিল। তবে তা সমাধান করে সংশোধিত ফল দেওয়া হয়েছে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে