এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের নতুন নির্দেশ

প্রকাশিত: জুলাই ৩১, ২০২১; সময়: ১০:৩৪ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম চলছে। ইতিমধ্যে পরীক্ষার্থীদের তিন সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশিত হয়েছে। এ কার্যক্রমের সার্বিক তথ্য চেয়েছে সরকার। আগামী ১৯ আগস্টের মধ্যে এসব তথ্য ই-মেইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে (মাউশি) পাঠাতে বলা হয়েছে।

শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ নির্দেশনা দিয়ে আঞ্চলিক উপপরিচালকদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে কতজন শিক্ষার্থী অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ করেছে, কতজন জমা দিয়েছে এবং কতজন শিক্ষার্থী অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেয়নি, সে তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে আঞ্চলিক উপপরিচালকদের কাছে। আগামী ১৯ আগস্টের মধ্যে তিন সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়ার যাবতীয় তথ্য মনিটরিং অ্যান্ড ইভালুয়েশন উইংয়ে পাঠাতে হবে।

উপপরিচালকদের পাঠানো চিঠিতে অধিদপ্তর বলছে, করোনা অতিমারির কারণে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড থেকে পাঠানো ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচির আলোকে অ্যাসাইনমেন্ট চলছে।

প্রথম ধাপে তিন সপ্তাহের জন্য ১৮ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মাধ্যমিক শাখা থেকে ওয়েবসাইটে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। সে নির্দেশনার আলোকে মাঠপর্যায়ে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম যথাযথভাবে পরিচালিত হচ্ছে কি না, তা মনিটরিং করা প্রয়োজন।

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমাদানসংক্রান্ত তথ্য অ্যাসাইনমেন্ট গ্রিড অনুসারে নির্ধারিত ছকে পাঠাতে হবে। এতে আওতাধীন সরকারি ও বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা, ২০২১ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে, এমন মোট সংখ্যা, প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা, প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট জমাদানকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা এবং প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেয়নি, এমন শিক্ষার্থীর সংখ্যা উল্লেখ করে ছক তথ্য পাঠাতে হবে। এতে অঞ্চলের নাম, ই-মেইল আইডি, মোবাইল ফোন নম্বর, মোট জেলার সংখ্যা, মোট উপজেলার সংখ্যা উল্লেখ করতে হবে।

ছক মোতাবেক তথ্য প্রস্তুত করে তা আগামী ১৯ আগস্টের মধ্যে অধিদপ্তরের মনিটরিং অ্যান্ড ইভালুয়েশন উইংয়ের ই-মেইলে  ([email protected]) পাঠাতে বলা হয়েছে আঞ্চলিক উপপরিচালকদের। তথ্য পাঠানোর ক্ষেত্রে অধিদপ্তর থেকে দেওয়া বিজ্ঞপ্তির নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে অনুসরণ করতে এবং যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মানতে কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে।

করোনা মহামারির প্রকোপে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করতে না পারায় চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা সব বিষয়ে না নিয়ে কেবল গ্রুপভিত্তিক নৈর্বাচনিক তিন বিষয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করেছে সরকার। এই বিষয়গুলোর সংক্ষিপ্ত পাঠ্যসূচি শেষ করা হবে অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে। এর মধ্যে এসএসসিতে মোট ২৪টি ও এইচএসসিতে ৩০টি অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হচ্ছে পরীক্ষার্থীদের।

পরিস্থিতির স্বাভাবিক হলে নভেম্বরের শেষে এসএসসি ও ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। তবে পরীক্ষা নেওয়া না হলে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়নের পরিকল্পনা আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

  • 263
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে