রাবির ভিসি পদে যাদের নাম প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে

প্রকাশিত: মে ১৬, ২০২১; সময়: ২:৩৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবির) উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুস সোবহানের মেয়াদ শেষ হবার পর এখন আলোচনায় কে হচ্ছেন পরবর্তী ভিসি। আলোচিত ভিসি ড. আব্দুস সোবহান প্রথম মেয়াদ ও দ্বিতীয় মেয়াদে অনিয়ম দুর্নীতিতে জড়িয়ে নিজেকে বিতর্কিত করেছেন।

সর্বশেষ মেয়াদের শেষ কার্যদিবসে গত ৬ মে ১৪১ জনের বিতর্কিত নিয়োগে আব্দুস সোবহান হয়েছেন টক অব দ্যা কান্ট্রি। তাই এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীসহ রাজশাহীবাসীর প্রত্যাশা দাঁড়িয়েছে স্বচ্ছ ও নীতিবান কেউ আসুক ভিসির দায়িত্বে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক সূত্র বলছে, উপাচার্য পদে তিনজনের নাম প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। রোববার শিক্ষা মন্ত্রনালয় তিনজনের নাম চূড়ান্ত করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠায়। এরা হলেন, রাবির সাবেক উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. চৌধুরী সারওয়ার জাহান, ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক ড. শহীদুল্লাহ এবং সাবেক লাইব্রেরী প্রশাসক ও বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদী। এদের মধ্য থেকে যে কোন একজনকে ভিসি পদে নিয়োগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে রাষ্ট্রপতির দপ্তরে পঠানো হবে।

সূত্রমতে, এর আগে আলোচনায় আরো অনেকের নাম শোনা গেলেও সর্বশেষ তিনজনের নাম চূড়ান্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রনালয়। তবে এদের মধ্যে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন সাবেক উপ-উপাচার্য চৌধুরী সারওয়ার জাহানের কথা জানা গেছে। তার বাড়ি রাজশাহী নগরের টিকাপাড়া এলাকায়। মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক পরিবারের এবং ক্লিন ইমেজের শিক্ষক হিসেবে পরিচিত সারওয়ার জাহান রাবির উপ-উপাচার্যের দায়িত্ব পালনকারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, গবেষণা ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছেন।

এছাড়াও তার বড় সফলতা বলে মনে করা হয়, নিয়োগে স্বচ্ছতা। যেহেতু বর্তমানে নিয়োগ বাণিজ্যের কারণে রাবি সমালোচনার শীর্ষে আছে, তাই চৌধুরী সারওয়ার জাহানকেই এই মুহুর্তে দায়িত্ব দেয়া হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে।

এদিকে, হঠাতই নতুন যে নাম ভিসি পদে উঠে এসেছে সেটি হলো ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক ড. শহীদুল্লাহ এর নাম। তার বাড়ি পাবনার নওদা গ্রামে। ড. শহীদুল্লাহ এর পরিবার সম্পর্কে সবারই জানা। জামায়াত নেতা আব্দুস সোবহানের পরিবারের সাথে তার সখ্যতা রয়েছে। তার শশুর বাড়িও জামায়াত পরিবার।

আর ড. শহিদুল্লাহর দুই ভগ্নিপতির একজন আব্দুর রশিদ ও অপরজন শহিদুর রহমান। তারা দুইজন জামায়াতের রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। এছাড়াও সর্বশেষ বিতর্কিত উপাচার্য আব্দুস সোবহান নিজেকে বাঁচাতে ড. শহীদুল্লাহকে ভিসি করতে উপর মহলে দৌড়ঝাঁপ ও লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

অপরদিকে, রাবির আগামী ভিসি পদের জন্য বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদীর নামও রয়েছে সর্বশেষ তালিকায়। ক্লিন ইমেজের শিক্ষক হিসেবে তিনি পরিচিত। তার বাড়ি নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁ। তার লেখাপাড়া জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ে।

এই সময়ে কেমন ভিসি দরকার জানতে চাইলে রাবির সাবেক ভিসি ও প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. আব্দুল খালেক মনে করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হওয়ার তিনটি মানদন্ডকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত। পান্ডিত্য, নেতৃত্ব ও ব্যক্তিত্ব। পন্ডিত আর নেতৃত্ব বলতে, বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিন, সিন্ডকেট, শিক্ষক সমিতি, দলীয় স্টিয়ারিংয়ে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করা শিক্ষক। আর ব্যক্তিত্ব হচ্ছে ব্যক্তির সামগ্রিক বৈশিষ্ট্য, যা তার সততার মাধ্যমে পরিস্ফুটিত হবে। এক কথায় এসব গুণ যার মধ্যে বিদ্যমান, তিনি এ পদের জন্য যোগ্য হবেন।

  • 263
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে