‘মুখে বঙ্গবন্ধুর বাণী, কাজে রাজাকারের আকার’

প্রকাশিত: মার্চ ২১, ২০২১; সময়: ৮:৫১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাবি : ‘পাহাড় সমান দূর্নীতির চাপে প্রশাসন আজ বিবেকহীন। যারা নিয়োগ বাণিজ্যের সাথে সম্পৃক্ত তাদের সাথে উপাচার্য মিটিং করেছেন। তার মুখে বঙ্গবন্ধুর বাণী, কিন্তু কাজে রাজাকারের আকার ধারণ করেছেন। এসব দূর্নীতিবাজদের টেনে-হিঁচড়ে বের করে মতিহারের এই পবিত্র ভূমিকে কলুষমুক্ত করতে হবে।’

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের দূর্নীতিবিরোধী শিক্ষকবৃন্দ’ ব্যানারে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম। রোববার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এক্রাম উল্যাহ বলেন, ‘আমরা দুই বছর ধরে অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছি। চিহ্নিত দূর্নীতিবাজরা লাজ-লজ্জা ত্যাগ করে ক্যাম্পাসে বিচরণ করছে। প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নেয় নি৷

ইউজিসির তদন্তে যে অভিযোগগুলো উঠে এসেছে, উপাচার্যের তার জবাব দেয়ার ক্ষমতা নেই। গোপনে গোপনে আরও দূর্নীতির প্রক্রিয়া চলছে। এসব দূর্নীতি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির অবস্থান দূর্বল করছে। আমরা আজকের অবস্থান থেকে দূর্নীতিবাজ প্রশাসনের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করছি।’

মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন বাংলা বিভাগের অধ্যাপক পুরনজিত মহালদার। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রায় অর্ধশত শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।

  • 52
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে