বিষয়কোড অন্তর্ভূক্তি চেয়ে রাবিতে পপুলেশন সায়েন্স বিভাগের মানববন্ধন

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২০; সময়: ৫:৪৪ pm |

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, রাবি: বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশনে (পিএসসি) বিষয়কোড অন্তর্ভূক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের (রাবি) পপুলেশন সাইন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীরা। রবিবার সকালে বিশ^বিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনের সামনে এই কর্মসূচী পালন করা হয়।

মানববন্ধনের শুরুতে স্যার জগদীস চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে একটি র‌্যালি বের করে বিশ^বিদ্যালয়ের জোহা চত্বর প্রদক্ষিণ করে সিনেট ভবনের সামনে অবস্থান নেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী রহুল কুদ্দুসের সঞ্চলনায় তৃতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী আমাননুল্লাহ আমান বলেন, আমাদের বিভাগের শিক্ষকরা দীর্ঘদিন যাবত পিএসসি-তে যোগাযোগ করলেও আমাদের এখনো কোনো কোড দেয়া হয় নি। আমাদেরকে অতিসত্তর কোড না দেয়া হলে আমাদের আন্দোলন আরো বেগবান হবে। আমাদের যেন আর ভাইভাবোর্ডে বিব্রতর না হতে হয় এ বিষয়কোডের জন্য।

মাস্টার্সের শিক্ষার্থী লিজা আক্তার বলেন, আমরা আমাদের বিষয় কোড চাই। আমাদের পরিচয় চাই। আমাদের পরিচয় না থাকার কারণে আমরা সবরকম সুবিধা থেকে বঞ্চিত। আমরা যখন অনার্স শেষ করে একটি চাকরীতে আবেদন করতে যাই তখন আমাদের অন্যান্য পছন্দক্রমে পূরণ করে আবেদন করতে হয়। আমরা পিএসসি অধীনস্থ উচ্চ বিদ্যালয়ের নন-ক্যাডার পদগুলোতেও যেতে পারি না। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিশ^বিদ্যালয়ে পড়ার পাশাপাশি বিভাগ প্রতিষ্ঠার ২৪ বছরেও যদি আমাদের বিষয়ের নির্দিষ্ট কোড না থাকে তাহলে এর চেয়ে আর কিছু কষ্টের হতে পারে না।

বিভাগের মাস্টর্সের শিক্ষার্থী জিমরান সাকিব বলেন, রাবির মতো একটা বিশ^বিদ্যালয়ে আমরা পড়ি, যেখানে ১৯৯৬ সালে একটি বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয়ে আজ দীর্ঘ ২৪ বছরেও বিষয় কোড অন্তর্ভূক্তিতে বারবার ব্যর্থ হয়েছে। আমার পরিসংখ্যান বিভাগের ৫০% এর বেশি পড়ার পরেও ইত্যাদিতে পরিসংখ্যান, সামাজিক বিজ্ঞান, অর্থনীতি প্রভূতি বিষয় উল্লেখ করলেও আমাদের বিষয় কোড না থাকায় আমরা দরখাস্তটা পর্যন্ত করতে পারি না। তিনি বলেন, কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার আগে আমাদের আর আশ^াস না দিয়ে আমাদের বিষয় কোড দিয়ে দেন। নতুবা বিষয়কোড না দেয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন অব্যহত থাকবে।

এসময় বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন এবং বিভাগ বিষয় কোড না দেয়া পযর্ন্ত একাডেমিক ক্লাস বর্জনের পাশাপাশি দাবি আদায় না হলে আগামীকালো একইভাবে মানববন্ধনে দাড়ানোর ঘোষণা দেয় বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মদিনা খাতুন, ওয়ালিদ, দিলরুবা দিপ্তী, চতুর্থ বর্ষের মাহফুজ হিমেল, আহসান হাবিব আকাশ, দ্বিতীয় বর্ষের আদিব ও আলামিন মুন্না প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জন্য সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী
  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ১৫ দিন পর এইচএসসি পরীক্ষা
  • ‘মূল্যায়ন ছাড়া নবম শ্রেণিতে অটো প্রমোশন হবে না’
  • প্রাথমিক বিদ্যালয় খুললে যে শর্তগুলো মানতে হবে
  • ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা অক্টোবর-নভেম্বরেই
  • ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আংশিকভাবে খোলার সুযোগ নেই’
  • ঋণ সহায়তার জন্য রাবির ৫৫০ শিক্ষার্থীর তালিকা ইউজিসিতে
  • বিফলে রাবির গেস্টহাউসের ১০ কোটি টাকা
  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে নতুন যে তথ্য দিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব
  • সফটওয়্যার আপগ্রেড হলেই উচ্চধাপে বেতন শিক্ষকদের
  • ধামইরহাটে বিদ্যালয়ে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের উদ্বোধন
  • ডাকসু ভিপি নুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা
  • ইউজিসির শুনানিতে যাননি রাবির ভিসি-প্রোভিসি
  • ভাড়া বাড়ি-শপিং মলেই চলছে প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি
  • নিবন্ধন সনদ জাল প্রমান হওয়ার পরও বহাল তবিয়তে প্রভাষক!
  • উপরে