গোদাগাড়ীর সৈয়দপুর হাইস্কুলে কম্পিউটার শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: মে ১, ২০১৯; সময়: ১০:১১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : গোদাগাড়ী উপজেলার রিশিকুল ইউনিয়নের সৈয়দপুর শহিদ মঞ্জু উচ্চ বিদ্যালয়ে কম্পিউটার -তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ের শিক্ষা হতে বঞ্চিত হচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীরা বলে অভিযোগ উঠেছে। স্কুলের একাধিক ছাত্র-ছাত্রীরা এমন অভিযোগ করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সৈয়দপুর শহীদ মুঞ্জু উচ্ছ বিদ্যায়ে দির্ঘদিন যাবত কম্পিউটার শিক্ষার জন্য নিয়োগপ্রাপ্ত হন আশরাফুল আলম। কিন্তু তিনী তার নিয়োগের পর থেকে কোন ছাত্র-ছাত্রীকে হাতেনাতে কম্পিউটার শিক্ষা প্রদান না করেই বিনা প্রতিবন্ধকতায় বেতন ভোগ করছেন বলেও জানা গিয়েছে। এদিকে দীর্ঘদিন যাবত এমন অনিয়ম চলার কারনে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা কম্পিউটার হাতেনাতে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন এ বিষয়ে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক তরিকুল ইসলামের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কি আর করবো কদিন আগেই ৬ হাজার টাকা দিয়ে কম্পিউটার মেরামত করে এনেছি তারপর আবারো নষ্ট হয়ে গিয়েছে। তেমন বাজেটও আসেনা ভাল কম্পিউটারও নেওয়া হয়না যার কারনে কম্পিউটার নেই স্কুলে। তবে এ সংবাদটি প্রকাশ না করারও অনুরোধ করেন এ প্রতিবেদকের নিকট।

এ বিষয়ে সৈয়দপুর হাইস্কুলের কম্পিউটার শিক্ষক আশরাফুল আলমের সাথে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে ফোন বন্ধ থাকার কারনে তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।আর গোদাগাড়ী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার ফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও ফোন রিসিভ করেননি তিনি।

এলাকার অভিভাবক সহ সচেতন ব্যাক্তি সকল বলছেন, সৈয়দপুর হাইস্কুলে দীর্ঘদিন যাবত কম্পিউটার শিক্ষক আছেন কিন্তু কম্পিউটার নেই যেকারণে আমাদের ছেলে মেয়েরা কম্পিউটার শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। অথচ কম্পিউটার শিক্ষক আশরাফুল আলম স্কুলে অনায়াসেই কোনরকম আসা যাওয়া করেই বেতন ভোগ করছেন, যার পেছনে প্রধান শিক্ষক তরিকুল ইসলাম এবং স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির গাফিলতি আছে এবং লাভজনক যোগসাজশও আছেন বলে দাবী করেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অভিভাবকগন। যার কারনে অভিযুক্ত আশরাফুল আলম কম্পিউটার শিক্ষা প্রদান না করেই বেতন ভোগ করছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে