শিবগঞ্জে গ্রাহকের দেড় কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা পিএফ

প্রকাশিত: মে ৯, ২০২২; সময়: ৭:১৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, শিবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে গ্রাহকের প্রায় দেড় কোটি নিয়ে লাপাত্তা হয়েছে ১৫ রশিয়া ফাউন্ডেশন নামে একটি স্থানীয় বেসরকারি এনজিও। ঈদ-উল-ফিরতের ছুটিতে এ কাণ্ড ঘটিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক আসদাক ও তার ছেলে আশিক।

জানা গেছে, উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় থেকে নিবন্ধন (নবাব-৪৯৫/১৫) নিয়ে উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের খাসেরহাটে প্রধান কার্যালয় করে ২০১৪ সাল থেকে অবৈধভাবে ক্ষুদ্র ঋণদান কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল। সোমবার সকালে সরজমিনে গিয়ে প্রধান কার্যালয়টি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে কয়েকজন কর্মী বলেন, ঈদের আগে ঠিকমতই অফিস করেছি। ঈদের ছুটিতে পরিচালক আসদাক আলি ও তার ছেলে শাখা ব্যবস্থাপক আশিক ১ কোটি ৪০ লাখ টাকা নিয়ে লাপাত্তা হয়েছে।

শুধু টাকা নয়, অফিসের যাবতীয় আসবাবপত্রও নিয়ে গেছে। ফলে চরম বিপাকে রয়েছেন। একদিকে গ্রাহকদের চাপ সৃষ্টি। অন্যদিকে উধাও জামানতের টাকাও। তারা জানায়, পরিচালকের স্ত্রীকে বিষয়টি জানালে তাদেরকে বিভিন্ন ধরনের গালিগালাজ ও মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দেয়ার হুমকি ধামকি দেয়। এদিকে ঘটনাটি জানাজানির পর সাধারণ গ্রাহকরা কিস্তি দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে। গ্রাহকদের চাপের মুখে পরিচালকের সাথে কর্মীরা ফোনে আলাপ করলে তিনিও বিভিন্ন ধরনের হুমকী দিচ্ছেন বলে অভিযোগ কর্মীদের।

গ্রাহক আবু সায়েম, আলম, হারিজ, নজরুল, সোহবুল, নুরুল ও নাজমা অভিযোগ করে বলেন, অনেক কষ্টে বিশ্বাস করে এনজিওতে টাকা জমা রেখেছিলাম। কিন্তু ঈদের পর থেকে আর অফিস খুলেনি। পরিচালক ও শাখা ব্যবস্থাপক সব টাকা নিয়ে পালিয়েছে। দ্রুত টাকা ফেরতের পাশাপাশি তাদের বিচার আওতায় আনার দাবি জানান গ্রাহকরা। এ ব্যাপারে পরিচালক আসদাক আলীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাঁর ব্যবহৃত মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

উপজেলা যুব অফিস বলছে- তারা কোনো ঋণ কার্যক্রম করবে না এই মর্মে তাদের কাছ থেকে প্রত্যয়ন পত্র নেয়া হয়েছে। তবে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কাঞ্চন কুমার দাস জানান, শুধু স্বেচ্ছাসেবীমূলক কাজের জন্য তাদের নিবন্ধন দেয়া হয়েছে। তারা কোন ঋণ কার্যক্রম চালাতে পারবে না। অভিযোগ পেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে