বাবার কাছে পাওনা আদায়ে ছেলেকে তুলে নিয়ে নির্যাতন

প্রকাশিত: মে ৬, ২০২২; সময়: ১০:৪৩ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বাবার কাছে ৪৫০ টাকা পাওনায় কিশোর ছেলেকে সহপাঠীদের সামনে থেকে অস্ত্র ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরের বাবা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মঙ্গলবার (৩ মে) ঈদের দিন কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সীমান্ত এলাকা ভৈরবপুর (পাহাড়পুর) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে বৃহস্পতিবার (৫ মে) এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়েরের পর বিষয়টি জানাজানি হয়। ওই কিশোরের বাবা ইউসুফ মিয়ার অভিযোগ, ছেলেকে নির্যাতনকারীরা চিহ্নিত মাদক কারবারি।

অভিযোগে তিনি জানান, কিছুদিন আগে পাশের গ্রাম ভৈরবপুর এলাকার নাহিদুলের দোকান থেকে একটি খাট বানিয়ে ৪৫০ টাকা বকেয়া ছিলো। ঈদের কয়েকদিন আগে নাহিদুল বাড়িতে আসেন। টাকা দিতে না পারায় তিনি গালাগাল ও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন।

ঈদের দিন বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বের হলে ছেলেকে বন্ধুদের সামনে থেকে অস্ত্র ঠেকিয়ে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যায় নাহিদুলের ভাই নাজমুল, আনোয়ার ও জসিম। পরে নাজমুল তার বাড়িতে নিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে ছেলে মারধর করে। খবর পেয়ে থানায় ফোন দেই।

পরে স্থানীয় ইউপি সচিব ও গ্রাম পুলিশ সেখান থেকে ছেলে উদ্ধার করে। আমি গরিব মানুষ, সামান্য টাকার জন্য ছেলেকে নির্যাতন করেছে, এই জঘন্য ঘটনার সঠিক বিচার চাই। এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত নাহিদুল ও নাজমুলের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

বুড়িচং থানার এসআই শরিফ রহমান রহমান জানান, ভুক্তভোগীর বাবা থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বিষয়টি তদন্ত চলছে। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে