উত্তরে যাত্রায় যানজট কমলেও রয়েছে ধীরগতি

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৯, ২০২২; সময়: ১২:৫৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ : ঈদ আসন্ন। পরিবারের সবার সাথে পবিত্র ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিয়ে যে যার মত রাজধানী ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গের প্রবেশপথ সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে নাড়ীর টানে ছুটছে বাড়িতে। এজন্য উত্তর-দক্ষিনাঞ্চলের ২২ জেলার মানুষের যাত্রার গাড়ীর প্রচন্ড চাপ বাড়ায় এই মহাসড়ক এখন মহা ব্যস্ত। সময় যাচ্ছে ক্রমাগত বাড়ছে চাপের পরিধি। ফলে এ মহাসড়কে কখনো যানজট আবার কখনো ধীরগতিতে চলছে গাড়ি।

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সকাল ৮ থেকেই মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু গোলচত্বর থেকে কড্ডার মোড়, ঝাঐল ওভার ব্রীজ হয়ে নলকা মোড় পর্যন্ত ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী লেনে ছিল যানজট। তবে পুলিশী তৎপরতায় বেলা ১১টার পর থেকে যানজট কমে আসে। বর্তমানে এই সড়কে চলছে ধীরগতি।

সরেজমিনে শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এই মহাসড়কে বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করে দেখা যায়, ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী যানবাহনের ছিল প্রচন্ড চাপ। তবে উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকা গামী লেন ছিল পুরোপুরী স্বাভাবিক। এছাড়া বেলা ১২টার পর উত্তরবঙ্গগামী লেনও পুলিশের প্রচেষ্টায় তা স্বাভাবিক হয়ে আসে।

কড্ডার মোড় এলাকায় দায়িত্বপালন কালে সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম সাংবাদিকদের সাথে আলাপ কালে বলেন, রাস্তার ক্যাপাসিটির তূলণায় গাড়ীর চাপ কয়েক গুন বেশি। এ কারনে কিছুটা গতি কমে যায় চলাচলকারী গাড়ী গুলোর। তবে কিছু ক্ষন পর গাড়ি গুলো আবারো পুর্ন গতিতে চলাচল করছে। আসলে সে অর্থে মহাসড়কে যানজট নেই।আমাদের ৪৫টি টিমে ৬শ পুলিশ দিন রাত যানজট নিরসনে কাজ করছে।

এদিকে ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জ আসা ইয়াকুব আলী, কামারখন্দের নওজেশ হোসেন জানান, ঈদে বাড়ি আসতে তেমন একটা বেগ পেতে হচ্ছেনা। তবে গাবতলী থেকে চান্দুরা পর্যন্ত ও বঙ্গবন্ধু সেতুর পর থেকে কিছুটা দুর্ভোগ ছিল যানজটের কারনে। তার পরও ঈদে বাড়ি ফিরতে পেরে আমরা আনন্দিত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে