নেতার ফাঁকা গুলিতে পণ্ড জাতীয় পার্টির ইফতার মাহফিল

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৬, ২০২২; সময়: ১:০৪ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বরিশালের মুলাদী উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের ভুইয়া বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় জাতীয় পার্টির ইফতার মাহফিলে ফাঁকা গুলির ঘটনা ঘটেছে।

মুলাদী উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হারুন অর রশিদ খান ইফতার মাহফিলের ব্যানারে তার নাম না থাকায় নিজ শটগান থেকে দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি করেন। এতে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে ইফতারে অংশ নেয়া দলের ৩০০ নেতাকর্মী ইফতার না করেই চলে যান।

নাজিরপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি এনামুল ভুঁইয়া বলেন, গত রোববার ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির উদ্যোগে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এ জন্য মুলাদী উপজেলার তিন শতাধিক নেতাকর্মী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের দাওয়াত দেওয়া হয়েছিল।

এতে আমন্ত্রিত ছিলেন মুলাদী উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হারুন রশিদ খান। ঐ ইফতার মাহফিলে আমিই (এনামুল) সভাপতিত্ব করি। হারুন খান ইফতারের কিছু আগে উপস্থিত হন। এ সময় ব্যানারে তার নাম লেখা হয়নি বলে রাগান্বিত হন। এমনকি বিষয়টি নিয়ে তিনি গালাগাল শুরু করেন।

এক পর্যায়ে তিনি নিজের লাইসেন্স করা শর্টগান বের করে ফাঁকা গুলি ছোড়েন। এতে করে ইফতার মাহফিলে আসা লোকজনের ছোটাছুটি শুরু হয়।

তিনি আরো বলেন, ইফতার মাহফিল পণ্ড না করে প্রয়োজনে আমার বুকে গুলি ছুড়তে বলি হারুন খানকে। তার এ ধরনের আচরণে নেতাকর্মীরা বেশিরভাগই ইফতারের স্থান ত্যাগ করে চলে যান।

নাজিরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাদল খান বলেন, হারুন অর রশিদ খান তার শটগান দিয়ে দুই রাউন্ড গুলি ছোড়ার কারণে ইফতারে আসা দাওয়াতি মানুষ এবং গ্রামবাসী আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন। এতে করে বেশিরভাগ অতিথি স্থান ছেড়ে চলে যান।

মুলাদী থানার ওসি মাকসুদুর রহমান বলেন, বিষয়টি শুনেছি। তবে কেউ কোনো অভিযোগ দেননি। জাতীয় পার্টির উপজেলা সভাপতি হারুন অর রশিদ খানের ব্যবহৃত মোবাইলফোনে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে