কিশোরগঞ্জে ছুরিকাঘাতে মামা খুন, পলাতক ভাগনে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৬, ২০২২; সময়: ১:১৪ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় ভাগনের ছুরিকাঘাতে মামা খুনের ঘটনায় ভাগনে জাহিদুল ইসলাম মহসিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তার দেওয়া তথ্যমতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ধারালো ছুরি উদ্ধার করা হয়।

গতকাল শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) রাত আড়াইটার দিকে কিশোরগঞ্জ সদর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পাকুন্দিয়া থানা পুলিশের একটি দল।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) দুপুর ১২টায় গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন পাকুন্দিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) (ভারপ্রাপ্ত ওসি) নাহিদ হাসান সুমন।

ভাগনে জাহিদুল ইসলাম মহসিন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মুকসেদপুর গ্রামের শাহাব উদ্দিনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দী ইউনিয়নের পোড়াবাড়িয়া গ্রামের মামার বাড়িতে মাকে নিয়ে থাকতেন।

নিহত আফজাল হোসেন রায়হান ওই গ্রামের মৃত গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। তিনি পোড়াবাড়িয়া দাখিল মাদরাসার সহকারী শিক্ষক (ইংরেজি) ছিলেন।

উল্লেখ্য, এর আগে বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) বিকেলে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মামা আফজাল হোসেন রায়হানকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে ভাগনে জাহিদুল ইসলাম মহসিন।

জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে জাহিদুল দুই মাস আগেও আফজাল হোসেন রায়হানের ওপর হামলা চালান। সে সময় প্রাণে বেঁচে যান রায়হান।

বৃহস্পতিবার বিকেল টিউবওয়েলে অজু করতে গেলে আফজালকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করেন মহসিন। গুরুতর আহত অবস্থায় আফজালকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পরই মহসিন পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় শুক্রবার নিহতের স্ত্রী রহিমা খাতুন বাদী হয়ে মহসিনসহ দুজনকে আসামি করে পাকুন্দিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে পাকুন্দিয়া থানা পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় শুক্রবার রাত আড়াইটার দিকে মহসিনকে গ্রেপ্তার করে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে