হেডফোন লাগিয়ে খেলছিল গেম, কাটা পড়ল ট্রেনে

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১২, ২০২২; সময়: ১১:৫৬ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : কুড়িগ্রামের রাজারহাটে কানে হেডফোন লাগিয়ে গেম খেলতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে এক কিশোর নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার দিনোবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম রাসেল। ১৫ বছর বয়সী রাসেল দিনোবাজার এলাকার মজিদ মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, রেললাইনে বসে কানে হেডফোন দিয়ে মোবাইলে গেম খেলছিলেন রাসেল। এ সময় ঢাকাগামী রংপুর এক্সপ্রেসে সংযোগকারী শাটল ট্রেনটি কুড়িগ্রাম থেকে কাউনিয়া যাত্রী নিয়ে যাওয়ার পথে কাটা পড়েন তিনি। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন।

রাজারহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু সরকার জানান, নিহত ওই কিশোরের বাড়ি রেললাইনের পাশেই। অসাবধানতাবসত ট্রেনে কাটা পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার কুবরেগাড়ি লাইনপাড়া এলাকায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছেন। এতে তার শরীর চার খণ্ড হয়ে যায়।

নিহত ১৬ বছর বয়সী নাজির হোসেন জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়নের বাজদিয়া গ্রামের দক্ষিণপাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আন্তঃনগর চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন নাজির। পরে আশপাশের লোকজনের সহায়তায় লাশের চারটি খণ্ড বস্তায় ভরে বাড়িতে নেন স্বজনরা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য জহিরুল হক বলেন, মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন নাজির। চিকিৎসাও চলছিল। মঙ্গলবার সকালে মাঠে যাওয়ার পথে রেললাইন পার হচ্ছিল। এ সময় অসাবধানতায় ট্রেনের নিচে পড়লে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন।

তার শরীর চার খণ্ড হয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা বস্তায় করে বাড়িতে নেয়। তার পরিবারের কারোর ওপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে কি না সেটা আমার জানা নেই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে