আক্কেলপুরে পিকাপের ধাক্কায় ভাইসহ ভ্যানচালক নিহত

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৮, ২০২২; সময়: ৬:৪৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, জয়পুরহাট : জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ছোট বোনকে ভর্তি করার পর ভ্যান যোগে বাড়ি ফেরার পথে কার্ভাড ভ্যানের ধাক্কায় ভাইসহ ভ্যানচালক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নিহতের মা, ছোট বোন ও বান্ধবী আহত হয়েছে। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। শনিবার দুপুর তিনটার দিকে আক্কেলপুর-জয়পুরহাট সড়কের আক্কেলপুর পৌর এলাকার কেসের মোড় নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, ভ্যানচালক সুজন হোসেন (৪০) এবং সাব্বির হোসেন (২০)। ভ্যানচালক সুজন হোসেন আক্কেলপুর উপজেলার চক রঘুনাথপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে আর সাব্বির হোসেন একই উপজেলার পূর্বমাতাপুর গ্রামের বাবর আলী ছেলে।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, পূর্বমাতাপুর গ্রামের বাবর আলীর মেয়ে সুমাইয়া খাতুন তার মা, বড় ভাই ও বান্ধবীকে নিয়ে সকালে আক্কেলপুর টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে অষ্টম শ্রেণিতে ভর্তি হতে আসেন। ভর্তির তারা চারজন একটি ভ্যানে চড়ে বাড়িতে ফিরছিলেন।

তাদের বহনকারী ভ্যানটি কেসের মোড়ে পৌঁছিলে ভ্যানের একটি চাকা ভেঙে যায় ফলে চালক গতি হারিয়ে ফেলে। এ সময় জয়পুরহাট থেকে দ্রুতগতিতে আসা একটি কার্ভাড ভ্যান ওই যাত্রীবাহী ভ্যানটি চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক সুজন হোসেন ও সাব্বির হোসেন মারা যান। স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে হতাহতদের উদ্ধার করে আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিনথিয়া (১৪) বলেন, আক্কেলপুর টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে আমার বান্ধবী সুমাইয়াকে অষ্টম শ্রেণিতে ভর্তি করিয়ে আমরা ভ্যানে চড়ে বাড়িতে ফিরছিলাম। হঠাৎ করেই আমাদের ভ্যানের সঙ্গে কার্ভাড ভ্যানের ধাক্কা লাগে। এরপর আমার আর কিছুই মনে নেই।

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুর রহমান বলেন, যাত্রীবাহী ভ্যানের একটি চাকা ভেঙে গেলে চালক গতি হারিয়ে ফেলে। এ সময় জয়পুরহাট থেকে দ্রুতগতিতে আসা কার্ভাড ভ্যানের ধাক্কায় যাত্রীবাহী ভ্যানের চালক ও একজন যাত্রী ঘটনাস্থলে মারা যান। এ ঘটনায় আরও তিন জন আহত হয়েছে। কার্ভাড ভ্যানটি আটক করা হয়েছে। কার্ভাড ভ্যানের চালক ও সহকারী পালিয়ে গেছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে