রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ জনকে হত্যার ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ১০

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৪, ২০২১; সময়: ১০:৩৪ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্প-১৮তে একটি মাদ্রাসায় গুলি করে এবং কুপিয়ে ছয়জনকে হত্যার ঘটনায় ২৭৫ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় শনিবার রাত ১২টার দিকে হত্যার ঘটনায় নিহত আজিজুল হকের বাবা নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে ২৫ জনের নাম ও অজ্ঞাত আরও ২৭৫ জনকে আসামি করে উখিয়া থানায় মামলা করেন। একাধিক অভিযান চালিয়ে এ পর্যন্ত ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তাদের মধ্যে একজনকে শুক্রবার সকালেই গ্রেফতার করা হয়েছিল। শনিবার বিকাল পর্যন্ত একাধিক অভিযান চালিয়ে অন্যদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- মজিবুর রহমান (১৯), দিলদার মাবুদ ওরফে পারবেজ (৩২), মোহাম্মদ আইয়ুব (৩৭), ফেরদৌস আমিন(৪০), আব্দুল মজিদ (২৪), মোহাম্মদ আমিন (৩৫), মোহাম্মদ ইউনুস ওরফে ফয়েজ (২৫), জাফর আলম (৪৫), মোহাম্মদ জাহিদ (৪০), মোহাম্মাদ আমিন (৪৮)। এদিকে এর মধ্যে মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে উখিয়া থানায় আরেকটি মামলা করেন।

৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অধিনায়ক (এসপি) শিহাব কায়সার খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, হত্যার ঘটনায় নিহত আজিজুল হকের বাবা নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে ২৫ জনের নাম ও অজ্ঞাত আরও ২৭৫ জনকে আসামি করে উখিয়া থানায় মামলা করেন।

এ মামলার এজাহারনামীয় পাঁচজন ও সন্দেহজনক পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে তিনজন সরাসরি হত্যাকাণ্ডে অংশ নেন বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। শিগগির বাকিদেরও আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে। ২২ অক্টোবর ভোরে বালুখালীর ক্যাম্প-১৮তে ‘দারুল উলুম নাদওয়াতুল ওলামা আল-ইসলামিয়াহ’ মাদ্রাসায় ঘুমন্ত শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি চালায় দুর্বৃত্তরা।

এতে তিন শিক্ষক ও এক ছাত্রসহ ছয়জন নিহত এবং কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন। কয়েকজনকে গলা কেটে মৃত্যু নিশ্চিত করেছে হামলাকারীরা। ঘটনার দিন শুক্রবার রাতেই তাদের লাশ নিজ নিজ ক্যাম্পে দাফন করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে