জয়পুরহাটে একদিনে দু’টি মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুর, আটক ১

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১; সময়: ৬:৩৮ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, জয়পুরহাট : জয়পুরহাট সদর উপজেলার শুকতাহার এলাকায় একই দিনে দুটি মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুর করেছে দুস্কৃতকারীরা। এ ঘটনায় পুলিশ লাল বাবু মন্ডল (৩৫) নামে এক জনকে আটক করেছে।

শুক্রবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় এ ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ) আলমগীর জাহান।

ভাংচুরের ঘটনা সকালে প্রশাসনকে জানায় মন্দির কমিটির লোকজন। খবর পেয়ে শনিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক শরিফুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খিস্ট্রান ঐক্য পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য এ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাাথ মন্ডল পিপি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, জয়পুরহাট সদর উপজেলার শুকতাহার মধ্যপাড়া ও পুর্বসার্বজনীন দুর্গা মন্দিরে শুক্রবার গভীর রাতে কে বা কাহারা প্রতিমা ভাংচুর করেছে। আসন্ন দুর্গাপুজা উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়েরের লোকজন প্রতিমা তৈরী করছেন।

হঠাৎ করে দুস্কৃতকারীরা শুক্রবার দিবাগত রাতের অন্ধকারে এই দু’টি মন্দিরের প্রবেশ করে তাদের প্রতিমাগুলো ভাংচুর করেছে। এ ঘটনায় ওই গ্রামের করিম মন্ডলের ছেলে লাল বাবু মন্ডলকে আটক করেছে পুলিশ।

শুকতাহার মধ্যপাড়া দুর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি সবুজ কুমার মন্ডল বলেন, শুক্রবার গভীর রাতে দুটি মন্দিরের বেশ কয়েকটি প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়েছে। সকালে তারা মন্দিরে গিয়ে প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা জানতে পারেন।

বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খিস্ট্রান ঐক্য পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য এ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল পিপি জানান, প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় যারা জড়িত তাদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তি দিতে হবে।

জয়পুরহাটের জেলা প্রশাসক শরীফুল ইসলাম বলেন, সকালে প্রতিমা ভাংচুরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। প্রতিমা ভাংচুরের সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করতে পুলিশ প্রশাসনকে বলা হয়েছে।

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা বলেন, প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের খুঁজে বের করে শাস্তির আওতায় আনা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে