গ্রামীণ সংস্কৃতির গুরুত্বপূর্ণ অংশ তাল পিঠা : খাদ্যমন্ত্রী 

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১; সময়: ৮:০৪ pm |
নিজস্ব প্রতিবেদক, নওগাঁ : দেশের সংস্কৃতির অন্যতম উপাদান গ্রামীণ সংস্কৃতির পিঠাপুলি। গ্রামীণ সংস্কৃতি আমাদের সংস্কৃতির প্রধান জায়গা। সেই গ্রামীণ সংস্কৃতির গুরুত্বপূর্ণ অংশ তাল পিঠা। ঘুঘুডাঙ্গার দৃষ্টিনন্দন তাল গাছের নিচে তাল পিঠা উৎসব আমাদেরকে সেই সংস্কৃতির শেকড়ের কথা মনে করিয়ে দেয়।
(শুক্রবার) বিকালে নিয়ামতপুরের হাজিনগর ইউনিয়নের ঘুঘুডাঙ্গায় প্রথমবারের মতো আয়োজিত “তাল পিঠা উৎসব”এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, এক সময় বরেন্দ্র অঞ্চলে তালগাছ উজাড় হয়ে যাচ্ছিলো। ফলে হারিয়ে যেতে বসে কচি তালের মিষ্টি সাঁস (তালকুর), পাকা তালের মধুর রস। গ্রামীন তাল পিঠার স্বাদ ও ঐতিহ্য। তাই এসব ঐতিহ্য রক্ষায় তালগাছ রোপনের উদ্যোগ গ্রহন করি। গাছ রোপনের কার্যক্রম প্রথমেই শুরু করেছিলাম ঘুঘুডাঙ্গায়। এখন সেই গাছগুলো অনেক বড়। সৌন্দর্য ও ছাঁয়া বিলিয়ে দিচ্ছে।
তিনি বলেন, ঘুঘুডাঙ্গার তাল গাছ এখন দেশের সম্পদে পরিণত হয়েছে। তালের রস থেকে তাল মিছরি প্রক্রিয়াকরণ করা গেলে এ অঞ্চলের মানুষের কর্মসংস্থান হবে। এ অঞ্চলের অর্থনীতিতে যোগ হবে নতুনমাত্রা। এসময় তিনি প্রতিবছর ২৪ সেপ্টেম্বর তাল সড়কে তাল পিঠা উৎসব আয়োজন করতে আয়োজকদের প্রতি আহবান জানান।
হাজিনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মো: হারুন- অর -রশিদ,পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান মিয়া, নিয়ামতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ আহম্মেদ, নিয়ামতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়া মারীয়া পেরেরা,ভাইস চেয়ারম্যান আইউব হোসেন মন্ডল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম,উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সহ-সভাপতি ঈশ্বর চন্দ্র বর্মন ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান বিপ্লব বক্তব্য রাখেন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে