গুরুদাসপুরে কোরআন নিয়ে কুরুচিপুর্ন মন্তব্য করায় গ্রেপ্তার ১

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১; সময়: ৭:১২ pm |

এস এম ইসাহক আলী রাজু, গুরুদাসপুর : নাটোরের গুরুদাসপুরে ইসলাম ধর্মের পবিত্রগ্রন্থ কোরআন শরীফ নিয়ে কুরুচিপুর্ন মন্তব্য করার অভিযোগে পীর ও মাজারভক্ত মোতালেব ফকির (৫৫) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ। গ্রেফতার মোতালেব চাপিলা ইউনিয়নের তেলটুপি গ্রামের মছের উদ্দিন ফকিরের ছেলে।

বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) কামাল পারভেজ নামের এক ব্যক্তির ফেসবুক আইডি থেকে উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের তেলটুপি গ্রামের মুছের উদ্দিন ফকিরের ছেলে মতলেব ফকির পবিত্র কোরআন শরীফ নিয়ে কটুক্তি ও বাজে মন্তব্য করায় নিজের ফেসবুক আইডি থেকে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে একটি পোস্ট করেন। সেই পোস্ট নজরে আসে প্রশাসনের। পরে পৌর সদরের চাঁচকৈড় বাজার এলাকা থেকে সন্ধা সাড়ে সাতটার দিকে ওই ভন্ড মতলেব ফকির কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও থানা পুলিশসুত্রে জানা গেছে,গত ৬ সেপ্টেম্বর সোমবার রাত ৮ টার দিকে স্থানীয় তেলটুপি গ্রামে এক চা দোকানে বসে কামাল হোসেনের (৪০) সাথে ইসলামী কথা বার্তা নিয়ে তর্কে জড়িয়ে পবিত্র ধর্মগ্রন্থ নিয়ে কুরুচিপুর্ন মন্তব্য করেন। কামাল একই এলাকার বাসিন্দা ও বড়াইগ্রাম পৌরসভার বাজার পরিদর্শক পদে চাকরী করেন।

ঘটনার দিন কামাল হোসেনসহ উপস্থিত চা ষ্টলের ভেতরে থাকা লোকজন তাঁকে আল্লাহ’র কাছে মা চাইতে বললে তিনি আবারও অবমাননামুলক মন্তব্য করেন। পরদিন সকালে কামাল হোসেন এ বিষয়ে তাঁর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুকে) একটি ট্যাটাস দেন। এতে ধর্মপ্রাণ এলাকাবাসী ােভে ফুঁসে ওঠে। পরে এলাকাবাসীর চাপে পীর ও মাজারভক্ত মোতালেব পার্শবর্তি সিংড়া উপজেলার ঘাসি দেওয়ানের মাজারে আত্মগোপন করেন।

বিষয়টি গুরুদাসপুর থানা পুলিশের নজরে এলে তারা ওই মাজারে অভিযানে গেলে মোতালেব কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে চাঁচকৈড় কাঁচারীপাড়া মহল্লার জনৈক ব্যাক্তির বাসায় আত্মগোপন করেন। পরে আজ (৯ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৭ টার দিকে ওই বাসা থেকে পুলিশ তাকে আটক করেন।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত হানার দায়ে গ্রেফতার মোতালেবের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে