নৌকা ভ্রমণে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার নববধূ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২, ২০২১; সময়: ৯:০১ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : হবিগঞ্জের লাখাইয়ে হাওরে স্বামীর সাথে নৌকাভ্রমণে বের হওয়া নববধূকে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় হবিগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) সকালে হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এ আট জনকে আসামি করে এই মামলা করেন ভুক্তভোগীর স্বামী।

আদালতে অভিযোগ আমলে নিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মামলা রেকর্ড করার জন্য লাখাই থানাকে নির্দেশ দিয়েছেন। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মামলার অভিযোগপত্র থেকে জানা যায়, ২৫ আগস্ট দুপুরে ওই দম্পতি তাদের এক বন্ধুকে সাথে নিয়ে হাওড়ে নৌভ্রমণে যায়। হাওড়ে পৌঁছামাত্র অপর একটি নৌকাযোগে আট যুবক তাদের গতিরোধ করে। পরে তাদের নৌকায় উঠে ওই যুবকরা ভুক্তভোগীর স্বামী ও তার বন্ধুকে মারধর করে ভুক্তভোগীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে তাদেরকে নগ্ন করে ভিডিও ধারণ করে তারা। পরে নগ্ন ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে নয় লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। পাশাপাশি হুমকি দেয় এ ব্যাপারে কাউকে জানালে ভিডিও ভাইরাল করে দেয়া হবে।

ভুক্তভোগী নারী বলেন, আমি নৌকার ভেতরে ছিলাম। হুট করে কয়েকজন নৌকায় উঠে আমার স্বামী আর তার বন্ধুকে মারধরা করে। এরপর আমাকে নির্যাতন করে। পরে আমাদের নগ্ন করে ভিডিও করে টাকা দাবি করে। নির্যাতনে আহত ভুক্তভোগীর স্বামীও একই কথা জানান।

নির্যাতনের শিকার নারী বর্তমানে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। সেখানকার মেডিকেল অফিসার ডা. নাদিরা বেগম বলেন, ওই নারী আমাদের এখানে ভর্তি হয়েছেন। তার চিকিৎসা চলছে। মেডিকেল পরীক্ষাও হবে।

এরই মধ্যে এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম।

  • 27
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে