উপজেলা চেয়ারম্যানের মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২, ২০২১; সময়: ৭:৫২ pm |

মো: মাসুদ রানা, কচুয়া : কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান (সাময়িক বরখাস্ত হওয়া) মো. শাহজাহান শিশিরের মুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেছে তাঁর ভক্ত-সমর্থকরা। বুধবার শাহাজাহন শিশিরের বিরুদ্ধে ঢাকার ধানমণ্ডি থানায় দায়েরকৃত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় বিজ্ঞ আদালত জামিন না মঞ্জুর করে পুনরায় তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করে।

এ খবর কচুয়ায় ছড়িয়ে পড়লে সন্ধ্যায় আশ্রাফপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু ইউছুফ ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজাউল মাওলা হেলালের নেৃতত্বে জগতপুর বাজার এলাকায় একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিল শেষে সমর্থকরা চাঁদপুর-কুমিল্লা সড়কের জগতপুর এলাকায় রাস্তায় টায়ার জ¦ালিয়ে সড়ক অবরোধ করে। পরে কচুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

অপরদিকে একইদিন সন্ধ্যায় শাহজাহান শিশিরের বিরুদ্ধে দায়ের করা ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহার করে নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন অন্তরের নেতৃত্বে কচুয়া পৌর বাজারে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি পৌর বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিশ^রোড হয়ে আকানিয়া ঘুরে পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন অন্তরের কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

এসময় তারা আওয়ামী লীগ নেতা কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান (সাময়িক বরখাস্ত হওয়া) শাহজাহান শিশিরের বিরুদ্ধে দায়ের করা ষড়যন্ত্রমূলক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা প্রত্যাহার করে নি:শর্ত মুক্তির দাবী জানান। বিক্ষোভ মিছিলটিতে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী যোগদান করে।

উল্লেখ্য, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের চাঁদপুরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী নূরে আলম লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২০২০ সালের ১৯ জুলাই শাহজাহান শিশিরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। ২০২০ সালে ২৫ আগস্ট ওই মামলায় শাহজাহান শিশির চাঁদপুর আদালতে জামিন চাইতে গেলে বিজ্ঞ আদালত তাঁর জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। পরে ২০২০ সালের ৮ ডিসেম্বর তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিনপ্রাপ্ত হয়ে ৩ মাস ১২ দিন পর কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি লাভ করেন।

এদিকে অ্যাড. মেহেদী হাসান মেরিন বাদী হয়ে গত বছরের ৭ ডিসেম্বর ধানমন্ডি থানায় শাহজাহান শিশিরের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং-০৫ (১২), ২০২০ ইং। ওই মামলায় একই বছরের ১৭ ডিসেম্বর উচ্চ আদালতের মাধ্যমে শাহজাহান শিশির ৬ সপ্তাহের আগাম জামিনে ছিলেন। বর্তমানে করোনাকালীন সময়ে বিজ্ঞ আদালত বন্ধ থাকায় বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) ওই মামলার শুনানির দিন ধার্য করা হয়।

এতে শাহজাহান শিশির স্থায়ী জামিন চাইতে গেলে বিজ্ঞ ঢাকা মহানগর দায়রা জজ এর বিচারক ইমরুল কায়েস তার জামিন মঞ্জুর না করে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় জেল খানায় প্রেরণের নির্দেশ দেন। শাহজাহান শিশিরের আইনজীবী মো. ইব্রাহিম খলিল মজুমদার এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এর আগে শাহজাহান শিশিরকে গত বছরের ২৩ জুলাই স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় সাময়িক বরখাস্ত করেন।

অন্যদিকে শাহজাহান শিশিরের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহার ও তার চেয়ারম্যান পদ পূর্নবহালের দাবি জানিয়েছে তার কর্মী সমর্থকরা।

  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে