নিয়ামতপুরে গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা!

প্রকাশিত: আগস্ট ২৯, ২০২১; সময়: ৪:২৫ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, নিয়ামতপুর : নওগাঁর নিয়ামতপুরে জমি লিজের টাকা দিতে দেরি হওয়ায় লিজ গৃহিতাদের লাগানো আম ও পিয়ারা বাগানের ১ হাজার ৫০টি পিয়ারা গাছ কর্তন করার অভিযোগ উঠেছে জমির মালিকদের বিরুদ্ধে।

শনিবার (২৮ আগষ্ট) থেকে গাছ কর্তন শুরু করে এ রির্পোট লিখা পর্যন্ত রবিবার বেলা ১২ টা পর্যন্ত গাছ কর্তন চলছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের পানিহারা ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে। এতে প্রায় ১১ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থ সরফরাজ। সরফরাজ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণচন্দ্রপুর গ্রামের বিশু মহাজনের ছেলে।

এ ঘটনায় বাগান লিজ গ্রহিতা সরফরাজ এ প্রতিবেদককে জানান, আমি পানিহারা গ্রামের মৃত- ভগুরুদ্দিনের ছেলে আতাউর মাষ্টার, রুহুল আমীন, হাবিবুর রহমান ও শফিকুল ইসলাম শফিকের নিকট ১০ বিঘা জমি ১২ বছরের জন্য প্রতি বছর ১ লক্ষ টাকা হিসাবে লিজ নেয়। ইতি পূর্বে ৪ বছর পার হয়েছে।

এ পর্যন্ত ৬ লক্ষ টাকার মধ্যে ৪ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। মাত্র ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দিতে বিলম্ব হওয়ার জন্য আমার ১ হাজার ৫০টি পিয়ারা গাছ কেটে ফেলেছে। আমার প্রায় ৩শ জন পিয়ারা নষ্ট করেছে যার আনুমানিক মূল্য ৫লক্ষ টাকা এবং ৩শ মন আম নষ্ট করেছে যার আনুমানিক মূল্য ৬ লক্ষ টাকা মোট ১১ লক্ষ টাকার ক্ষতি করেছে। আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে।

লিজ প্রদানকারীদের মধ্যে একজন আতাউর রহমান মাষ্টার জানান, সরফরাজের গত চৈত্র মাসে লিজের টাকা দেওয়ার কথা ছিল। চুক্তি অনুযায়ী ৫ মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও সরফরাজ লিজের টাকা না দিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। গত২ মাস যাবত আমাদের কোন ফোন রিসিভ করছে না। তাছাড়া পিয়ারা গাছগুলোর মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় গাছগুলো কাটা হয়েছে। টাকার জন্য নয়।

এ বিষয়ে নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইন চার্জ হুমায়ন কবির বলেন, আমি কোন অভিযোগ পাই নাই। পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে