সান্তাহারে পুকুরে বিষ দিয়ে দুর্বৃত্তদের মাছ নিধন

প্রকাশিত: আগস্ট ২৮, ২০২১; সময়: ২:০৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, আদমদীঘি : বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে এক মৎস্যচাষির পুকুরের পাড়ে পতাকা টাঙিয়ে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে এক লাখ টাকার মাছ মরে গেছে বলে মৎস্যচাষি মিজানুর রহমান দাবি করেন।

উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের জাহানাবাজ গ্রামে তার রেলওয়ে থেকে লিজকৃত পুকুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে ওই মৎস্যচাষি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, উপজেলার সান্তাহার ইউপির জাহানাবাজ গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে মিজানুর রহমান রেলওয়ের কাছ থেকে ২৫ একরের পুকুরটি লিজ নিয়ে দির্ঘদিন যাবৎ মাছ চাষ করে আসছিল।

হঠাৎ বৃহস্পতিবার একই গ্রামের ইসমাঈলের ছেলে শরিফুল ইসলাম স্বপন মৎস্যচাষি মিজানুর রহমানের বাড়িতে গিয়ে মাছ চাষ করতে নিষেধ করে এবং নিষেধাজ্ঞা মানাতে পুকুরের পাড় দিয়ে তিনি ব্যক্তিগত ভাবে বেশ কয়েকটি লাল ও হলুদ রঙের পতাকা টাঙিয়ে দেন।

এরপর ওই দিন রাতেই বিষ প্রয়োগের ঘটনায় প্রায় এক লক্ষাধীক টাকার বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মরে ভেসে উঠে। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে গ্রামের লোকজন তাকে বিষয়টি জানালে তিনি থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযুক্ত শরিফুল ইসলাম স্বপনের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি পতাকা টাঙানো এবং বিষ দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, গত দেড় বছর আগে রেলওয়ের কাছে থেকে তিনি ওই পুকুরটি লিজ নিয়েছিলেন। করোনা পরিস্থিতি ও লকডাউনের কারনে দখলে যেতে পারেন নি।

সম্প্রতি রেল ভু-সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তারা এসে তাকে পুকুরটি বুঝিয়ে দিয়ে গেছেন। কিন্তু তারা এখন দখল ছাড়বেনা এজন্য তারা নিজেরাই পুকুরে বিষ দিয়ে আমাকে ফাসানোর চেষ্টা করছে।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দীন বলেন, অভিযোগ দায়েরের পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে