করোনা রোগীদের বাড়িতে ত্রান নিয়ে হাজির ইউপি চেয়ারম্যান

প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২১; সময়: ৯:২৮ pm |

মো: মাসুদ রানা, কচুয়া : চাঁদপুরের কচুয়ায় দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনার প্রকোপ। গত কয়েক দিনে কচুয়া উপজেলায় বিভিন্ন ইউনিয়নে করোনা রোগীর সংখ্যার পরিমান বৃদ্ধি পাওয়ায় জনমনে বিভোর সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে ৪নং পালাখাল মডেল ইউনিয়নে দোয়াটি,পালাখাল ও মেঘদাইর সহ কয়েকটি গ্রামে করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। বিশেষ করে মঙ্গলবার দোয়াটি শীল বাড়িতে করোনা রোগী সনাক্ত হওয়ার পর তাদের বাড়ি লকডাউন করা হয়। লকডাউনের পর থেকে ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইমাম হোসেন সোহাগ নিজ অর্থায়নে ওই বাড়ি ও পাশ^বর্তী ৩০টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেন এবং তিনি নিজে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোজখবর রাখছেন। এছাড়া জীবনের ঝুকিঁ নিয়ে প্রতিনিয়ত করোনা মোকাবেলা কাজ করছেন তিনি। সাধারন মানুষকে মাস্ক পড়া,স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার আহ্বান জানান তিনি।

ইউপি চেয়ারম্যান মো: ইমাম হোসেন সোহাগ জানান, সরকারি ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউন সবাই মেনে চলতে হবে। পাশাপাশি যে বিধি নিষেধ রয়েছে তাও পালন করতে হবে। কচুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপায়ণ দাস শুভ‘র নির্দেশক্রমে প্রতিনিয়ত এই ইউনিয়নের প্রতিটি বাজারে স্বাস্থ্য বিধি মানা,কাচাঁমাল দোকান ব্যতীত সকল দোকানপাট বন্ধ করার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমার ইউনিয়নে যারা করোনা আক্রান্ত হয়েছে তাদের প্রতিনিয়ত খোজখবর রাখছি,পাশাপাশি তাদের বাড়িতে গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌছে দিচ্ছি। তিনি সবাইকে করোনা আক্রান্ত রোগীদের অবহেলা না করার জন্য আহ্বান করেন। সবাইকে তাদের পাশে দাড়ানোর আহ্বান জানান তিনি। করোনাকালীন সময়ে করোনা রোগীদের পাশে থাকায় ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইমাম হোসেন সোহাগকে স্বাগত জানিয়েছেন সচেতন মহল।

  • 250
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে