সকলকে টিকার আওতায় আনতে স্থানীয় জন সম্পৃক্ততা গুরুত্বপূর্ণ- খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: আগস্ট ২, ২০২১; সময়: ৩:১১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক নওগাঁ : করোনা সংক্রমণ কমাতে টিকা কার্যক্রম বাড়ানো হচ্ছে।সকলকে টিকার আওতায় আনতে স্থানীয় জন সম্পৃক্ততা গুরুত্বপূর্ণ। এসময় তিনি যে সকল স্থানে লোক সমাগম বেশি হয় সে সকল ওয়ার্ডের জনগণকে প্রথম টিকা দেয়ার নির্দশনা দিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার।

আজ (সোমবার) পোরশা উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ‘উপজেলার ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়ন ও করোনার উর্ধ্বগতি রোধকল্পে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে শোকাবহ আগস্টে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ঘাতকের হাতে নির্মম হত্যাকান্ডের শিকার সকলের স্মরণে এক মিনিট দাড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

খাদ্যমন্ত্রী ভ্যাকসিন নিয়ে কোন ধরনের অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, একসময় যারা টিকা নিয়ে অপপ্রচার চালিয়েছে তারা এখন টিকা নিচ্ছেন। টিকার সুফল পেতে হলে স্বাস্থ্যবিধিও মানতে হবে বলে তিনি এসময় উল্লেখ করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: নাজমুল হামিদ রেজা এর সভাপতিত্বে উপেজলা চেয়ারম্যান শাহ মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান মো: কাজীবুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোসা. মমতাজ বেগম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. মো: মাহবুব হাসান, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: শফিউল আযম খান , উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মোল্লা বক্তৃতা করেন।

মতবিনিময় সভায় উপজেলার বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, গণমাধ্যমকর্মীগণ এবং বিভিন্ন ওয়ার্ডের সেচ্ছাসেবকগণ অংশ নেন। পরে তিনি করোনা মোকাবিলায় সম্মুখসারির যোদ্ধাদের মাঝে সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেন।

এর পরে তিনি পোরশার গোপালগঞ্জে আশ্রায়ন ২ প্রকল্প পরিদর্শন করেন ও নিবাসীদের মাঝে করোনাকালে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা কর্মসূচির আওতায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন এবং আশ্রয়ন কেন্দ্রে একটি গাছের চারা রোপণ করেন। উল্লেখ্য, মুজিবশতবর্ষ উপলক্ষে গোপালগঞ্জ আশ্রায়ন ২ প্রকল্পে ৭৮ টি গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ গৃহ প্রদান করা হয়।

 

  • 86
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে