নিয়ামতপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাড়ী ভাংচুর

প্রকাশিত: জুলাই ৩০, ২০২১; সময়: ৪:৫১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, নিয়ামতপুর : সামান্য সাজিনা গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে বাড়ী ভাংচুর নিয়ে দুপক্ষের পরস্পর বিরোধী অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২৯ জুলাই বৃহস্পতিবার বেলা ৯টা থেে ১০টার মধ্যে উপজেলা রসুরপুর ইউনিয়নের রসুলপুর দীঘিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে জানা যায়, মৃত সোহরাব আলীর ছেলে ইরফান এর ভাই জিয়াউর রহমানের স্ত্রী সাহানা বেগম শাক তুলতে গিয়ে একটি ছোট সাজিনার গাছ ভেঙ্গে ফেলে। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী আবু তাহের ও তার অন্যান্য ভাইরা ইরফানের বাড়ী ভাংচুর করে। ঘটনার সংবাদ পেয়ে বেলা ১১টায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ বিষয়ে ইরফান বলেন, আমার চাচা মৃত-আব্দুস সালামের ৯ ছেলে আবু তাহের, এমদাদুল হক, তরিকুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম, শামীম, রবিউল ইসলাম, সাপটু, জাহিদ ও মংলা এবং চাচা আবুল কালাম ও আবুল কালামের ছেলে ফারুক দলবদ্ধভাবে সাজিনার গাছ কেটে ফেলার অজুহাতে আমার ঘরের জানালা, প্রাচীরে আকস্মিকভাবে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

আবু তাহের বলেন, আমরা এরফান ভাই এর ঘরের অর্ধেক পর্যন্ত জায়গা পাবো। তবুও আমরা তাদের কিছু বলি নাই। তাদের সময় দেওয়া হয়েছে ঘরটি সরিয়ে নেওয়ার জন্য। কিন্তু তারা বিভিন্ন কারণে গোলমাল করার চেষ্টা করে। বিনা কারণে সাজিনার গাছ কেটে ফেলেছে। আমাদের জায়গার উপর গাছটি রয়েছে সবাই জানে। তারপরেও তারা জায়গাটি নিজেদের বলে দাবী করে। ঘটনাক্রমে এরফান ভাই এর ঘরের জানালায় একটি দোকালের কোপ মেরেছি। কিন্তু কোন ভাংচুরের ঘটনা ঘটেনি।

এরফানের চাচাতো ভাই হাবিবুর রহমান বলেন, এরফানের ঘরের অর্ধেক আবু তাহেররা পাবে। তাই সামান্য কথা কাটাকাটির জেরে রাগে আবু তাহের এরফানের ঘরের জানালায় কোদাল দিয়ে একটি কোপ দিয়েছে। কোন ভাংচুর হয়নি। তারা সবাই একই বংশের লোক। গ্রামের সবাই মিমাংসার চেষ্টা করছে।

  • 36
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে