মানিকগঞ্জে আট দিনে শনাক্ত ৭০১, মৃত্যু ৯

প্রকাশিত: জুলাই ১৯, ২০২১; সময়: ১:১২ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : মানিকগঞ্জে ১২ জুলাই থেকে ১৯ জুলাই পর্যন্ত আট দিনে দুই হাজার ৩১৮টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছেন ৭০১ জন। শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ২৪ শতাংশ। এই আট দিনে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছন ৯ জন।

আর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১ হাজার ৩৪৮টি। রোববার (১৯ জুলাই) দুপুর ১২টার দিকে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের একাধিক সূত্রের মাধ্যমে এ তথ্য জানা গেছে।

জেলায় ১২ জুলাই থেকে ১৯ জুলাই পর্যন্ত আক্রান্ত ৭০১ জনের মধ্যে মানিকগঞ্জ সদর ২২১ জন, সাটুরিয়ায় ৭৬ জন, দৌলতপুরে ৩২ জন, ঘিওরে ৬২ জন, শিবালয়ে ৮৮ জন, হরিরামপুরে ৫৮ জন এবং সিংগাইরে ১৬৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, জেলায় এ পর্যন্ত ২৭ হাজার ৬৭টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৭০৩ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৫৭৪ জন। জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৬৫ জন। ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২০৬ টি। আক্রান্তরা হাসপাতাল ও নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) কাজী একে এম রাসেল জানান, জেলা হাসপাতালের আওয়াতাধীন ১০০ শয্যা কোভিড-১৯ ডেডিকেটেড হাসপাতালে পজিটিভি রোগী ভর্তি আছেন ৭২ জন।

তিনি আরও বরেনর, আইসোলেশন ওয়ার্ডে রোগী ভর্তি আছেন ৮১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৪২ জন, নারী ৩৯ জন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩২ জন। ছাড়পত্র নিয়েছেন ৫ জন এবং আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা গেছে একজন।

সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল আমিন আখন্দ জানান, করোনা সংক্রমণ বিস্তার রোধে সরকার কঠোর লকডাউন দিয়েছিল। কিন্তু লকডাউনেও জেলায় প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। ঈদকে সামনে রেখে সরকার লকডাউন শিথিল করেছে। তবে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে চলফেরা করার কারণে আক্রান্তের হার বেড়েই চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে