খুলনার ২ হাসপাতালে প্রাণ গেল ১১ জনের

প্রকাশিত: জুলাই ১৭, ২০২১; সময়: ১২:০০ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : খুলনার দুই হাসপাতালে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (১৬ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে শনিবার (১৭ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে করোনায় ১০ জন এবং একজন উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে সাতজন এবং গাজী মেডিকেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকাল পার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- নগরীর টুটপাড়ার পারভীন (৫৫), সেলিনা হোসেন (৫০), শেখ আবু হোসেন আবু (৬৫), খালিশপুরের ইলাহী (৬৫), পাইকগাছার বায়োজিদ সরদার (৫৫) ও নড়াইল সদরের মির্জাপুরের মোয়াজ্জেম হোসেন (৭০)। এ ছাড়া উপসর্গ নিয়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২০০ জন। যার মধ্যে রেড জোনে ১৩৬ জন, ইয়ালো জোনে ২৪ জন এবং আইসিইউতে ২০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৮ জন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৯ জন।

বেসরকারি গাজী মেডিকেল হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

তারা হলেন- খুলনা নগরীর শেখপাড়ার মাহামুদা খানম (৫৯), দিঘলিয়া উপজেলার দেয়াড়ার সাহিদা বেগম (৫৫), নড়াইলের লোহাগড়ার জোগিয়া গ্রামের শেখ আবুল হোসেন (৮৫) ও যশোর সদরের জাকির হোসেন (৫৭)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ১০৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৯ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২০ জন।

খুলনার শহীদ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানান, হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন ৪৪ জন। তার মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন একজন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন দুজন। তবে এ সময় কারও মৃত্যু হয়নি।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, হাসপাতালে কারও মৃত্যু হয়নি। এ ছাড়া চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫৬ জন। তার মধ্যে ২৪ জন পুরুষ ও ৩২ জন নারী। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৯ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ জন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে