স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুরু হলো সান্তাহার রাধাঁকান্ত হাট 

প্রকাশিত: জুলাই ১০, ২০২১; সময়: ৮:৩০ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, আদমদীঘি : করোনাকালীন সময়ে সারাদেশে বেশির ভাগ জায়গায় যেখানে সামাজিক দূরত্ব, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে ব্যর্থ হচ্ছে গরুর হাটের আয়োজকরা। সেখানে বগুড়া আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর এলাকায় আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুরু হয়েছে রাধাঁকান্ত কোরবানি পশুর হাট।

হাট কর্তৃপক্ষ জানান, সারাদেশে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। সামনে ঈদুল আজহা, তাই সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী পশুর (গরু) হাট বসবে। ক্রেতা-বিক্রেতাদের সুবিধার্থে হাটে প্রশাসন নজরদারি রেখেছেন। যাতে করে হাটে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ক্রেতা-বিক্রেতারা বেচাকেনা করতে পারেন।

নিয়মতান্ত্রিক ভাবে প্রতি সপ্তাহে শনি ও মঙ্গলবার বসছে এই হাট। হাটে সান্তাহার, আদমদীঘি ছাড়াও পাশ্ববর্তী রানীণগর, আক্কেলপুর, নওগাঁসহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে গরু আসে। উপজেলার মধ্যে সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হাট এটি।

শনিবার হাটে গিয়ে দেখা যায়, হাটে মানুষ কম থাকলেও ক্রেতা-বিক্রেতাদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক ও হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করেছেন হাট কর্তৃপক্ষ। এছাড়া সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে পুলিশ সদস্যদের সহায়তা নেয়া হয়েছে। এছাড়াও হাটের বিভিন্ন স্থানে স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক বিলবোর্ড স্থাপন করা হয়েছে।

হাট ইজারাদারের পক্ষে দিদারুল ইসলাম প্রিন্স বলেন, মাস্ক বিহীন ক্রেতা-বিক্রেতাদের মাঝে মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে। সপ্তাহে প্রতি শনি ও মঙ্গলবার ছাড়াও ঈদুল আজহা পর্যন্ত হাটের পশ্চিম পাশে সেড থেকেও গরু বিক্রি করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে