নওগাঁয় যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধিকে অব্যাহতি

প্রকাশিত: জুলাই ২, ২০২১; সময়: ৩:৩১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, মান্দা : নওগাঁর মান্দায় বিটপুলিশের কার্যালয়ে অনধিকার প্রবেশসহ গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র ও রেজিস্টার হাতিয়ে নেওয়ার দায়ে দৈনিক যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধি আব্বাস আলীকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

গত ২৬ জুন সম্পাদক সাইফুল আলম স্বাক্ষরিত এক পত্র থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। অন্যদিকে নওগাঁ জেলা প্রেসক্লাবের সদস্য পদ থেকেও আব্বাস আলীকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র।

যুগান্তরের অব্যাহতি পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে ‘আপনি বিট পুলিশিং কার্যালয়ে দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তার অনুমতি না নিয়ে তার অনুপস্থিতিতে অফিস কক্ষে ঢুকে ফাইলপত্র দেখেন। সরকারি অফিসে একজন কর্মকর্তার কক্ষে প্রবেশ করতে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতির প্রয়োজন হয়। আপনি এ বিষয়ে কোন অনুমতি নেননি। যা মারাত্মক অপরাধ। এজন্য আপনাকে দৈনিক যুগান্তর এর নওগাঁ জেলা প্রতিনিধির পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হল।’

জানা যায় ‘আইনের লোক’ পরিচয়ে গত ২৪ জুন দুপুরে উপজেলার গনেশপুর ইউনিয়নের বিটপুলিশিং কার্যালয়ে ঢুকে ৮টি রেজিস্টারসহ গুরুত্বপূর্ণ নথি চুরি করে নিয়ে যায় অজ্ঞাত পাঁচ যুবক। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর টনক নড়ে পুলিশের। ঘটনায় ওই কার্যালয়ের দায়িত্বে থাকা মান্দা থানার উপপরিদর্শক ফারুক হোসেন গত ২৬ জুন সাধারণ ডাইরি করেন। এর পর অজ্ঞাত যুবকের নাম পরিচয় শনাক্তে তদন্তে নামে পুলিশ।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান জানান, প্রাথমিক তদন্তে অজ্ঞাত ওইসকল যুবকদের মধ্যে দৈনিক যুগান্তরের সাংবাদিক আব্বাস আলীর পরিচয় শনাক্ত হওয়া যায়। বিষয়টি জানাজানির পর যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধির পদ থেকে তাকে অব্যাহতি প্রদান করে।

ওসি আরো বলেন, তদন্তে সাংবাদিক আব্বাসের সঙ্গে থাকা অন্যদেরও পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। খুব শিগগিরই তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

  • 279
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে