মহাদেবপুরে কিশোর-কিশোরী ক্লাবের নাস্তার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশিত: জুন ৩০, ২০২১; সময়: ৮:১৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, মহাদেবপুর : নওগাঁর মহাদেবপুরে কিশোর-কিশোরী ক্লাবের নাস্তার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বে) আমিনা খাতুন ও জেন্ডার প্রোমোটর মোঃ মেহেদী হাসান ও অরুপ কুমার সরকারের বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে চেরাগপুর ইউপির ৭,৮, ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য মোছাঃ রেনুকা বেগম গত ১৬ই জুন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের শেষের দিকে উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ১০টি কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন করা হয়। ওইসব ক্লাবে কিশোর কিশোরীদের স্বাস্থ্য সচেতনতা, সংগীত ও আবৃত্তি শেখানোর জন্য অস্থায়ী ভিত্তিতে ২জন জেন্ডার প্রোমোটর ও ১০ জন সংগীত ও ১০ আবৃত্তি শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়।

জেন্ডার প্রোমোটর ও শিক্ষকদের সম্মানী ভাতাসহ শিক্ষার্থী কিশোর কিশোরীদের জন্য জনপ্রতি ৩০ টাকা করে নাস্তার জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়। উক্ত টাকা থেকে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বে) আমিনা খাতুন ৩০ টাকার স্থলে ১৫ টাকা করে নাস্তার জন্য বরাদ্দ দেন। অবশিষ্ট টাকা ২জন জেন্ডার প্রোমোটরসহ তিনি ভাগাভাগি করে আত্নসাত করে আসছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বে) আমিনা খাতুন জানান, নাস্তার টাকা আত্মসাতের অভিযোগটি সঠিক নয়। পরে ওই মহিলা মেম্বার বিষয়টি বুঝতে পেরে তার অভিযোগটি উঠিয়ে নিয়েছেন।

এ বিষয়ে মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানুর রহমান অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ বিষয়ে ২ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বিষয়টি তদন্তের জন্য দেয়া হয়েছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে