বদলগাছীতে করোনা আক্রান্ত চালাচ্ছেন ভ্যান, আতঙ্ক এলাকাবাসী

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২১; সময়: ৯:৩৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, বদলগাছী : নওগাঁর বদলগাছীতে করোনা আক্রন্ত ব্যক্তি চার্জার ভ্যান চালিয়ে দিন দুপুরে ভাড়া মারছে বাজারে। করোনা আক্রন্ত ব্যক্তির প্রকাশ্যে ভ্যান নিয়ে ভাড়া মারতে দেখে এলাকাবাসীর মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

বদলগাছী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, গত ২০ জুন উপজেলার জিধিরপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত আলিম মন্ডল এর ছেলে বাবু (৫৫) তার শারিক সম্যসার কারণে বদলগাছী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের ভর্তি হন ।

২১ জুন তার করোনা পজেটিভ দেখা দেয়। তাঁকে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করলে তিনি এখানে থাকবেনা বলে পালিয়ে চলে আসে। পালিয়ে আসার পর ঐ দিনিই তিনি তার অটো চার্জার ভ্যানে মানুষ চরিয়ে ভাড়া মারতে থাকে। সেই দিন তার আশে পাশের কিছু লোক তাকে ভাড়া মারতে দেখে প্রতিবাদ করলে সে বাড়িতে চলে যায়। সে দিন রাতেই উপজেলা প্রশাসন থেকে তার বাড়িটি লকডাউন করে দেন এবং বাড়ির সামনে লাল রংয়ের লকডাউনের স্টিকার মেরে দেন।

তারপরও তিনি তার বাড়ির পাশের গ্রামে অবাধে চলাচল করতে থাকে। চলাচল করতে দেখে ঐ গ্রামের লোকজন তার উপর ক্ষিপ্ত হলে সে বাড়িতে চলে যায়।

সোমবার ( ২৮শে) জুন আবারো সে তার চার্জার ভ্যান নিয়ে বাজারের মধ্যে প্রকাশ্যে ভাড়া মারছে। এই দৃশ্য দেখে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন ও সাবার ভিতরে অতংক সৃষ্টি হয়।

বাজারের ভ্যান চালক রাজু, জুয়েল, রহমত সহ বেশ কিছু ব্যক্তি বলেন , সে করোনা আক্রান্ত রোগী সে যদি এভাবে ভ্যান নিয়ে বাজারে ভাড়া মারে তাহলে আমাদের নিরাপ্তা কোথায়।

সচেতন মহল বলেন, করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি বাহিরে কি ভাবে চলা ফেরা করছে। সরকার উপজেলা প্রশাসনকে দ্বায়িত্ব দিয়েছেন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়িতে লকডাউন দেওয়ার। আবার সেই লকডাউন কৃত ব্যক্তিরা ঠিক মতো বাড়িতে থাকছে কিনা না বাহিরে ঘোরাফেরা করছে তা দেখার জন্য উপজেলায় একটি মনিটরিং টিমও রয়েছে । তারপর কি ভাবে করোনা আক্রন্ত ব্যক্তি বাহিরে প্রকাশ্যে চলাফেরা করছে। এটা দেখে আমরা মনে করি এটা উপজেলা প্রশাসনের দ্বায়িত্বের অবহেলা ও ব্যর্থতা। এই দূর্যোগ সময়ে প্রশাসন যদি তাদের দ্বায়িত্ব এভাবে পালন করেন তাহলে এই উপজেলাবাসী যাবে কোথায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা কানিজ ফারহানা বলেন, করোনা আক্রন্ত বাড়িতে লকডাউন দিবে উপজেলা প্রশাসন এবং তারা বাড়িতে অবস্থান করেছে কিনা সেটি দেখার জন্য উপজেলায় ও প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায়ে মনিটরিং কমিটি রয়েছে। এব্যাপারে আমার কোন করণীয় নেই। তিনি আরো বলেন যদি করোনা আক্রন্ত ব্যক্তি এইভাবে বাহিরে ঘুরাফেরা করে থাকে তাহলে এটা খুব দুঃখের বিষয়।

করোনা আক্রন্ত ব্যক্তি কি ভাবে প্রকাশ্যে অটো চার্জার ভ্যান নিয়ে বাজারে ভাড়া মারছে বলে প্রশ্ন করলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলপনা ইয়াসমিন বললে, আমি দুই দিন আগেও তার বাড়িতে গিয়ে তাকে দেখে এসেছি। তার বড়িতে লকডাউন দেওয়ার পর সর্বক্ষণ সেই বাড়িটি মনিটরিং করার জন্য উপজেলায় একটি মনিটরিং টিম রয়েছে তারা কি করছেন বলে অপর প্রশ্নে তিনি বলেন, বিষয়টি আমি এখনি দেখছি।

  • 127
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে