নওগাঁয় বাড়ছে করোনায় মৃতের সংখ্যা

প্রকাশিত: জুন ২৫, ২০২১; সময়: ৬:৫৯ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, নওগাঁ : নওগাঁয় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। ২৪ঘন্টায় জেলায় নতুন করে আরও ২জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৭২জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে ৪০৯ টি নমুনার বিপরীতে ১২৫ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। যা শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ০৫ শতাংশ। নতুন ১২৫ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় জেলায় মোট শনাক্ত ৪০৮২ জন। এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে ৯২জন সুস্থ্য হওয়ায় মোট ২৭৪৭ জন করোনা মুক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েন নওগাঁ জেলা ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ মোর্শেদ।

নওগাঁর ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ মোর্শেদ বলেন, সংক্রমণ বাড়লেও অনেকেই এখনো স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। এতে হুহু করে জেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নতুন করে আরো দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। যা উদ্বেগের কারণ হয়ে দাড়িয়েছে।

এছাড়াও একদিনে নতুন করে আরো ১২৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সচেতনতায় পারে এই মহামারি থেকে নিজেকে নিরাপদ রাখতে। সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে এবং মাস্ক পরিধানে উদ্ধুদ্ধ করতে প্রতিনিয়ত জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ থেকে সচেতনতামূলক মাইকিংসহ নানান কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। এছাড়া করোনা ভাইরাস পরীক্ষায় মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে দৈবচয়ন পদ্ধতিসহ নানান উদ্যোগ নিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

এদিকে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় জেলাজুড়ে চলমান বিধিনিষেধের পাশাপাশি জেলার সকল পশুর হাট বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

জেলা প্রশাসনের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনার সংক্রমণ রোধে গত ৩ জুন থেকে ৯ জুন নওগাঁ পৌরসভা ও নিয়ামতপুর উপজেলায় লকডাউনের পাশাপাশি অন্যান্য উপজেলার হাটবাজার এলাকায় আংশিক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল। এতে করোনার সংক্রমণের হার কিছুটা কমে যাওয়ায় গত ১০ থেকে ১৬ জুন পর্যন্ত জেলাজুড়ে ১৫ দফা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়।

পরবর্তীতে এর মেয়াদ সাত দিন বৃদ্ধি করে আবারো ২৩ জুন পর্যন্ত বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়। এরপরেও করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে না আসায় বুধবার (২৩জুন) জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভায় চলমান বিধিনিষেধ আরও সাত দিন বাড়িয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত হয়। বৃহস্পতিবার (২৪ জুন ) সন্ধ্যায় চলমান বিধি নিষেধের পাশাপাশি জেলার সকল পশুর হাট বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, জেলার সকল পশুর হাট বন্ধ থাকবে। তবে খামার থেকে এবং অনলাইনে পশু ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে। সীমান্তবর্তী উপজেলা থেকে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। রোগী পরিবহনকারী/ এ্যাম্বুলেন্স, জরুরী পণ্য পরিবহন, জরুরী সেবা-পরিসেবা ও জরুরী সরকারী গাড়ীর ক্ষেত্রে এ নির্দেশনা প্রযোজ্য হবে না। পাড়া/মহল্লা ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবক টিম গঠনপূর্বক স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে, বাধ্যতামূলক মাস্ক পরিধান এবং স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে মসজিদের মাইক থেকে নিয়মিত জনসচেতনতামূলক ঘোষণার ব্যবস্থা করতে হবে। স্কুল-মাদ্রাসার শিক্ষকদের সম্পৃক্ত করে পাড়া/ মহল্লায় সচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণের ব্যবস্থা করতে হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে