গুরুদাসপুরে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর আটক

প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০২১; সময়: ৯:০২ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : নাটোরের গুরুদাসপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগে মেহেদী হাসান (১৫) নামে এক কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই কিশোরকে আটক করে গুরুদাসপুর থানার পুলিশ।

বুধবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের দক্ষিন সাহাপুর গ্রামে মেয়েটির নানার বাড়িতে ওই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। মেহেদী হাসান পাশ্ববর্তী বামনকোলা গ্রামের রবিউল করিমের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, গত এক বছর ধরে মেয়েটির সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মেহেদী হাসানের। বুধবার রাতে মেয়েটিকে বিয়ে করবে বলে প্রলোভন দিয়ে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। মেয়েটি এসময় ডাক চিৎকার দিলে অভিযুক্ত মেহেদী হাসান দৌড়ে পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার সকালে মেয়েটি তার আত্বীয় স্বজনকে ঘটনা জানায়। মেয়ের আত্বীয় স্বজন ছেলে পক্ষের কাছে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তারা অস্বীকার করে। বৃহস্পতিবার দুপুরে মেয়েটির মা থানায় অভিযোগ দিলে অভিযুক্ত মেহেদী হাসানকে পুলিশ আটক করে।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে মেয়েটির মা থানায় এসংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে অভিযুক্তকে আটক করা হয়।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে