কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে করোনায় আরও ৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: জুন ২০, ২০২১; সময়: ১:৪৩ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে করোনায় একদিনে আরো ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দুপুর থেকে রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে এসব রোগি মারা যান। এ সময়ে জেলায় নতুন রোগি সনাক্ত হয়েছে ১৬৪ জন।

৫৪৯টি নমুনা পরীক্ষার পর এই ১৬৪ জন রোগি শনাক্ত হয়। পরীক্ষার বিপরিতে সনাক্তের হার প্রায় ৩০ শতাংশ। কুষ্টিয়ায় এ নিয়ে গত দুই দিনে করোনায় মারা গেলেন ১৫ জন মানুষ।

গতকাল শনিবার আক্রান্তের সংখ্যা জেলায় করোনা আক্রান্তের নতুন রেকর্ড তৈরি করেছে। এদিন নতুন করে আরো ১৬৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এদিন জেলার মোট ৫৪৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

এর মধ্যে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পিসিআর ল্যাবে ২৬৪টি, এন্টিজেন টেস্ট ২০২ টি এবং ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পিসিআর ল্যাবে ৮৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরমধ্যে ১৬৪টি নমুনা পজিটিভ আসে।

পরীক্ষার বিপরীতে আক্রান্তের হার প্রায় ২৮ শতাংশ। নতুন শনাক্ত হওয়ার রোগীর মধ্যে সদর উপজেলায় সর্বোচ্চ ১০০ জন, কুমারখালী উপজেলায় ২৪ জন, মিরপুর উপজেলায় ৭ জন, দৌলতপুরে ১৬ জন, খোকসা উপজেলায় ৪ জন ও ভেড়ামারা উপজেলায় ১৩ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৬৩৩৯ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৯৮৫ জন মানুষ। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন জন ১৫৯ জন মানুষ।

এদিকে, কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে করোনা ওয়ার্ডে ১০০টি শয্যার বিপরিতে বর্তমানে ১১৫ জন রোগি ভর্তি রয়েছে।

রোগির চাপ ঠেকাতে ২৫০ শয্যার কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল করার জন্য ঢাকায় প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. তাপস কুমার সরকার।

উদ্ভুত পরিস্থিতিতে কুষ্টিয়া পৌরসভা এলাকায় কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হলেও তা চলছে ঢিলেঢালা ভাবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে