খাবারের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে স্বামীকে হত্যার কথা স্বীকার

প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২১; সময়: ১:০২ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : খাবারের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে পরিকল্পিতভাবে সিলেটের আইনজীবী আনোয়ার হোসেনকে হত্যা করা হয়েছে বলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন তাঁর স্ত্রী শিপা বেগম। রোববার বিকেলে সিলেটে চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সাইফুর রহমানের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তিনি।

জবানবন্দির বরাত দিয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ বলেন, পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী আনোয়ারের স্ত্রী শিপা বেগম ও তাঁর প্রেমিক মিলে তাঁকে খুন করেছেন। ২৯ এপ্রিল গভীর রাতে আনোয়ারকে খাবারের সঙ্গে ১০টি ঘুমের ওষুধ খাওয়ানো হয়। আনোয়ার উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।

পুলিশ জানায়, আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুর ১০ দিনের মাথায় শাহজাহান চৌধুরী নামে এক ব্যক্তিকে গোপনে বিয়ে করেন শিপা বেগম। আনোয়ার হত্যা মামলায় ৩ জুন শিপা বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়াছিন আলী। আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। শিপাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর রোববার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তিনি।

আনোয়ারের ভাই মনোয়ার হোসেন বলেন, শিপার বর্তমান স্বামী পূর্বপরিচিত। এতে পরিবারের সন্দেহ আরও গাঢ় হয়। তাঁর ভাইয়ের মৃত্যুর এক মাস পর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়। ১ জুন ভাই মনোয়ার হোসেন আদালতে মামলার আবেদন করেন। ২ জুন আদালতের নির্দেশে সিলেট কোতোয়ালি থানায় হত্যা মামলা নেওয়া হয়। মামলায় শিপা বেগম ছাড়াও আনোয়ারের শাশুড়ি রেশনা বেগম, শিপা বেগমের বর্তমান স্বামী শাহজাহান চৌধুরীসহ আটজনের নাম উল্লেখ করে আসামি করা হয়েছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে