তাড়াশে বর্ষার পানিতে ডুবে যাচ্ছে কৃষকের ধান

প্রকাশিত: জুন ৭, ২০২১; সময়: ১:৫২ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, তাড়াশ : চলনবিলাঞ্চলে নদ-নদী ও ডোবা-নালায় বর্ষার পানি আসতে শুরু করেছে। নিচু এলাকার ধানের উঠানেও পানি উঠে পড়েছে। কিন্তু এখনো তাড়াশের চলনবিলাঞ্চলে ৩৫০ হেক্টর জমির বোরো ধান জমিতে রয়ে গেছে। এ কারণে ধান কাটা নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন কৃষকেরা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সগুনা ইউনিয়নের কামারশন ও মাকড়শন গ্রাম এলাকার বিস্তীর্ণ মাঠে-মাঠে পাকা পাকা ধান। কৃষকেরা অধিক সংখ্যক শ্রমিক দিয়ে ধান কেটে নেওয়ার চেষ্টা করছেন।

সগুনা ইউনিয়নের কামারশন ও মাকড়শন গ্রামের একাধিক কৃষক বলেন, আমাদের শত শত বিঘা জমিতে আমরা বোরো ধানের আবাদ করেছি। ঐ সকল এর মধ্যে কিছু জমির ধান পেকেছিল সে গুলো আমরা ভাল ভাবে কেটে ঘরে তুলেছি। কিন্তু এখনো অনেকের জমির ধান পাকতে সপ্তাখানেক দেরি আছে।

কুন্দইল গ্রামের মুজাম্মেল নামে একজন কৃষক বলেন, কিছুটা কাঁচা থাকতেই অনেকে ধান কেটে বাড়িতে আনছেন। কিন্তু বাড়ির উঠানে পানি উঠে পড়ায় ধান মাড়াই করা নিয়ে আরেক বিরাম্বনায় পড়তে হচ্ছে।

এদিকে বিলের নদ-নদী ও ডোবা-নালা পানিতে ভরে জমির আইলে পানি ছুঁই-ছুঁই করছে। প্রকৃতিরও বিরুপ আচরণ। দিনে কয়েকবার করে বৃষ্টি হচ্ছে। এমন অবস্থায় ধান কেটে ঘরে তোলা নিয়ে শংশয় কাটছেনা।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা লুৎফুন নাহার লুনা বলেন, যে সব কৃষকের খেতের অনন্ত ৭০% ধান পেকে গেছে তাদের আর দেরি না করে ধান কাটার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে