কুষ্টিয়ায় সাংবাদিক জামিলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা, সংবাদ সম্মেলনে পরিবারের দাবি

প্রকাশিত: মে ১৭, ২০২১; সময়: ৪:১৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া : বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন টেলিভিশন চ্যানেল নিউজ টোয়েন্টিফোরের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ও সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সাধারণ সম্পাদক জামিল হাসান খান খোকনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে তার পরিবার। সোমবার বেলা ১১টার দিকে কুষ্টিয়ার কোর্টপাড়ার হাসপাতাল মোড়স্থ নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবী করে অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতার দাবী করেন খোকনের পরিবারের সদস্যরা।

সংবাদ সম্মেলনে জামিল হাসানের ভাই কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি নাফিজ আহমেদ খান টিটু বলেন, ১২ মে সন্ধ্যায় সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ¬বের বাসায় যান সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জামিল হাসান খান খোকন।

এ সময় সংগঠনের টাকা পয়সার ভাগ বাটোয়ারা ও সংগঠনের পদ দখল করতে পরিকল্পিতভাবে সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ¬ব ও তার সহযোগি মিলন উল¬াহসহ অন্যরা জামিল হাসানকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে জামিল অচেতন হয়ে পড়েন। পরে তিনি ঢাকার নিউরোসাইন্স হাসপাতালে গত ১৪ মে দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে মারা যান।

এদিকে এ ঘটনার পরদিন নাফিজ আহমেদ খান টিটু সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ¬ব, মিলন উল¬াহ, সালমান সাহরিয়ার রাজু ও রাকিবুল হাসানের নাম উলে¬খ করে আরো ১০/১২ জনকে আসামী করে মডেল থানায় এজাহার দেন। তবে অজ্ঞাত কারণে পুলিশ তা সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে নথিভুক্ত করে।

টিটু অভিযোগ করেন, আমি অভিযোগ দিলেও পুলিশ জিডি নিয়েছে। টিটু অভিযোগ করে আরো বলেন, বিপ¬ব খারাপ মানুষ, তার বিচার দাবি করছি।

তিনি বলেন, ঘটনার সময় সেখানে উপস্থিত থাকাদের আলাদা আলাদা করে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই প্রকৃত ঘটনা বের হয়ে আসবে। এ সময় জামিল হাসানের স্ত্রী কামরুন্নাহার খান, ছেলে জায়েদ হাসান খান, শিশু মেয়ে জামিয়া খান জারা ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া সদর মডেল থানার ওসি শওকত কবির বলেন, এ বিষয়ে দ্রুত গতিতে তদন্ত চলছে, যদি অভিযোগ সত্যি হয় তবে জিডিটি মামলায় পরিণত হবে, আসামীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

  • 25
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে