মহাদেবপুরে প্রভাবশালীরাদের জমি দখলে আট পরিবার অবরুদ্ধ

প্রকাশিত: এপ্রিল ৩০, ২০২১; সময়: ১০:১৮ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, মহাদেবপুর : নওগাঁর মহাদেবপুরে নিজেদের জমি দাবী করে প্রভাবশালীরা দখল করে ঘিরে নেয়ায় ৮টি পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। ঘটনাস্থলে থাকা খড় ও ধানের পালা এবং গরুর সেড ভেঙ্গে ২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটের অভিযোগ করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার উপজেলার চেরাগপুর ইউনিয়নের পদ্মপুকার গ্রামে। ঘটনার খবর পেয়ে শুক্রবার ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, আলীমুদ্দিন মন্ডল ২০০৬ সালে তার নাতি মোঃ নাজমুস্ সাকিবকে হেবা দলিলমূলে রেজিষ্টি করে দেয়। মোঃ নাজমুস্ সাকিব নাবালক হওয়ায় তার পক্ষে বাবা মোঃ আব্দুর রাজ্জাক দখল বুঝে নিয়ে ভোগদখল করে আসছে। সেখানে তারা একটি গরুর সেড ও ধান ও খড় রাখার খলা হিসেবে ব্যবহার করে আসছে এবং পাশ্ববর্তী বাড়ি মানুষজনের চলাচলের জন্য মাঝখান দিয়ে একটি রাস্তা রেখে দিয়েছিলেন।

ঘটনার দিন সকাল ১০ টা থেকে প্রায় ১টা পর্যন্ত সন্ত্রাসী কায়দায় পদ্মপুকুর গ্রামের মৃত মানিক সরদারের পুত্র মোঃ আশরাফুল ইসলাম ও মোঃ ইসরাফিল আলম, আশরাফুল ইসলামের পুত্র জাহাঙ্গীর আলম, ইসরাফিল আলমের পুত্র সবুজ, হোসেনপুর গ্রামের মৃত সাহেব উদ্দীনের পুত্র মোঃ হাবিবুর রহমান ৪০-৫০ জন লাঠিয়াল নিয়ে এসে ওইখানে রাখা ১৬ বিঘা জমির খড়ের পালা, ৫বিঘা জমির আতব ধানের পালা এবং গরুর সেডের ২বান টিনসহ প্রায় ২লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

তারা সেখানে জোরপূর্বক বাঁশ দিয়ে ঘিরে জবর দখল করে। ফলে সেখান দিয়ে চলাচলকারী বেলাল হোসেনের পুত্র শামীমের পরিবার, ছোলাইমানের পুত্র ওমর ফারুক ও রেজাউল ইসলামের পরিবার, মৃত কাউছারের পুত্র আব্দুল জলিল ও বেলাল হোসেনের পরিবার, মৃত আফছার আলী মন্ডলের পুত্র মোঃ দুলাল হোসেন ও আব্দুল মালেকের পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। তাদের চলাচলের রাস্তা বন্ধ হওয়ায় তারা বিপাকে পড়েছেন।

মৃত আফছার আলী মন্ডলের পুত্র মোঃ দুলাল হোসেন ও আব্দুল মালেকসহ আরো অনেকে জানান, প্রতিপক্ষ ব্যক্তিরা খুবই দুর্ধর্ষ প্রকৃতির লোক। তারা সমাজে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। বিভিন্ন অপরাধের কারণে তারা ইতিপূর্বে জেলও খেটেছেন। তাদের ভয়ে এলাকার কেউই মুখ খুলতে সাহস পান না। প্রতিপক্ষরা তাদের চলাচলের রাস্তাসহ ওই জমি জোরপূর্বক দখল করে বাঁশ দিয়ে ঘিরে নেয়ায় তাদের চলাচলের রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে। এখন তারা খুবই মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পদ্মপুকুর গ্রামের বাসিন্দা ও চেরাগপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ মকিম উদ্দীন জানান, আলীমুদ্দিন মন্ডল গং প্রায় ৪০ বছর থেকে ওই জমি ভোগদখল করে আসছে। ওই গ্রামের বাসিন্দা আলহাজ্ব সালেম উদ্দীন ও মোঃ আব্দুল জব্বার সহ আরো অনেকেই জানান, ওই জমি আলিমুদ্দিন গং পৈত্রিকসূত্রে এবং কবলা দলিল মূলে প্রাপ্ত হয়ে প্রায় ৪০ বছরেরও অধিক সময় ধরে ভোগ দখল করে আসছেন।

এ বিষয়ে প্রতিপক্ষ মোঃ ইসরাফিল আলম মোবাইল ফোনে জানান, ওই জমিটি খতিয়ান মূলে ওয়ারিশন সূত্রে তারা তার মায়ের অংশ হিসেবে পেয়েছেন। তাই তারা জমিটি বাঁশ দিয়ে ঘিরে নিয়েছেন। রাস্তা বন্ধ করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, তারা জমিটি ঘিরে নিলেও প্রতিবেশীদের চলাচলের জন্য পাশে রাস্তা রেখেছেন। তাই রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার তথ্যটি সঠিক নয়।

এ বিষয়ে নওহাটা পুলিশ ফাড়ি ইনচার্জ এস আই জিয়াউর রহমান জানান, ঘটনার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়েছি এবং আদালতের নির্দেশনা মেনে চলার জন্য বলেছি।

  • 69
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে