২ বছর পর বেতন-বোনাস পেলেন শিবগঞ্জ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৯, ২০২১; সময়: ৫:১৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, শিবগঞ্জ : শিবগঞ্জ পৌরসভায় দুই বছর পর এক মাসের বেতন ও ঈদ বোনাস পেয়েছেন ৫২ জন স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারী। বৃহস্পতিবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেয়র সৈয়দ মনিরুল ইসলাম। এর আগে চলতি বছরের মার্চ মাসের বেতন ও ঈদ-ঊল-ফিতর উপলক্ষে বোনাস প্রদানের চেকে স্বাক্ষর করেন তিনি। তবে বাকি থাকলো ২৩ মাসের বেতন-ভাতা। দুই বছর পর বেতন পেয়ে অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন অফিস সহায়ক রাজু আহমেদ। তিনি বেতন-বোনাস পেয়ে নতুন মেয়রকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

স্বাস্থ্য সহকারী সাহানারা খাতুন বলেন, দীর্ঘ দুই বছর আমরা কোন ধরনের বেতন-বোনাস না পেয়ে মানবেতর দিন পার করছিলাম। আমাদের এমন কষ্ট দেখে নবনির্বাচিত মেয়র সৈয়দ মনিরুল ইসলাম দায়িত্ব নেয়ার পরেই সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর বেতন ও বোনাসের ব্যবস্থা করেন। সচিব মোবারক হোসেন বলেন, পৌরসভার ৫২ জন স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে এক মাসের বেতন ও ঈদ বোনাস বাবদ প্রায় ২৫ লাখ টাকা প্রদান করা হয়েছে। কিন্তু পৌরসভার অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগপ্রাপ্ত ১২৬ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর গত দুই বছরের বেতন ও অন্যান্য ভাতা প্রদান করা সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, স্থায়ী ৫২ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর বাকি ২৩ মাসের বেতন ভাতা প্রদান করা হয়নি।

মেয়র সৈয়দ মনিরুল ইসলাম বলেন, গত ২ বছর ধরে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেতন-বোনাস না পেয়ে অতি কষ্টে দিন যাপন করছিলেন। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বেতন-বোনাস প্রদানের উদ্যোগ নেয়া হয়। তিনি আরও বলেন, প্রায় ১৫ কোটি টাকা দেনা মাথায় নিয়ে ২৫ বছরের পিছিয়ে পড়া পৌরসভাকে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের মহাসড়কে সংযুক্ত করতে চাই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে