বড়াল নদের সংযোগ খাল খনন কাজ আদালতের নির্দেশে বন্ধ

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৮, ২০২১; সময়: ৫:১৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : নাটোরের বাগাতিপাড়ার চক হরিরামপুর স্লুইস গেট সংলগ্ন বড়াল নদের সংযোগ খাল পুনরায় খননের কাজ আদালতের নির্দেশে বন্ধ হয়ে গেছে। আদালতের নির্দেশ পাওয়ার পর নাটোর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী খালেদ বীন ওয়ালিদ এলাকায় সরেজমিন গিয়ে খনন কাজ বন্ধ করে দেন।

এক কোটি ১৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ৫ কিলোমিটার দীর্ঘ খালটি খনন করার কথা থাকলেও প্রায় চার কিলোমিটার খননের পরে আদালতের নির্দেশে অবশিষ্ট কাজ বন্ধ করা হয়। উপজেলার শ্রীরামপুর মৌজা এলাকার কাজ বন্ধ করে দিয়েছে নাটোর পানি উন্নয়ন বোর্ড।

স্থানীয়দের দাবি, নদের সংযোগ স্থান থেকে খালের চার কিলোমিটার জমি সরকার অধিগ্রহণ করে। অবশিষ্ট জমি অধিগ্রহণ না করেই খাল খনন করতে চাওয়ায় জমির মালিকরা আদালতের স্মরণাপন্ন হন। ফলে আদালত অধিগ্রহন না করা জমিতে খাল খননের উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন।

অভিযোগকারী শরিফুল ইসলাম বলেন, কয়েক বছর আগে চক হরিরামপুর স্লুইস গেট সংলগ্ন বড়াল নদের সংযোগ স্থান থেকে খাল খননের জন্য প্রায় চার কিলোমিটার জমি সরকার অধিগ্রহণ করেছেন। আর আমাদের জমি অধিগ্রহন করা হয়নি। তাই আমাদের জমিতে যেন খাল খনন করতে না পারে এ জন্য আমরা আদালত থেকে খাল খননের উপর নিষেধাজ্ঞা নিয়ে এসেছি।

নাটোর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী খালেদ বীন ওয়ালিদ বুধবার সকালে এলাকায় সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে বলেন, জনগণের আপত্তির মুখে পুনঃখনন কাজ আপাতত বন্ধ রাখা হলো। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত খনন কাজ বন্ধ থাকবে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার উপজেলার তমালতলা চক হরিরামপুর স্লুইস গেট এলাকায় আনুষ্ঠানিকভাবে খাল খনন কাজের উদ্বোধন করেন নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল। নাটোর পানি উন্নয়ন বোর্ড খালটি খনন করছে।

  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে