তাড়াশ-নওগাঁ রাস্তার মেরামত কাজ ৭ বছরেও শেষ হয়নি

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৬, ২০২১; সময়: ৩:৩৮ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, তারাশ : ৭ কোটি ৫৬ লাখ ৮৮ হাজার ৬শ’ ৬ টাকার মেরামত কাজ ৭ বছর বন্ধ থাকায় দীর্ঘ দিন ধরে এলজিইডির সিরাজগঞ্জের তাড়াশ-নওগাঁ ১২ কি:মি: পাকা রাস্তার বেহাল দশা হয়ে আছে। গত ৭ বছরে ৭ কোটি ৫৬ লাখ ৮৮ হাজার ৬শ’ ৬ টাকা ব্যয়ের ঐ রাস্তার ৭ ভাগ মেরামত কাজও করা হয়নি। বর্তমানে রাস্তাটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে জনদূর্ভোগ ব্যাপকভাবে চরমে পৌছাচে। এ কারণে ঐ রাস্তায় প্রতিনিয়ত ঘটছে ব্যাপক অঘটন। কিন্তু এ গুলো দেখার কেউ নেই।

২০১৫ সালে রাস্তাটির মেরামতের জন্য ঠিকাদারী কাজ পেয়েছেন ঢাকার একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ঐ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিক হচ্ছেন এলজিইডির সাবেক একজন মহাবড় কর্মকর্তা। এ কারণে এলজিইডির তাড়াশ ও সিরাজগঞ্জ অফিসের লোকজন তাকে কিছু বলে সাহস পাচ্ছেন না। এমনকি তারা রাস্তাটির মেরামতের কাজের বিষয়ে সাংবাদিকদেরও কোন তথ্য দিচ্ছেন না বলে জানা গেছে। আর এ কারণেই ঐ রাস্তা মেরামত কাজের এমন বেলাল দশা হয়ে আছে ৭ বছর ধরে।

এ ব্যাপারে তাড়াশ উপজেলার এলজিইডি প্রকৌশলী জানান, এই রাস্তা মেরামতের কাজ যে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান পেয়েছিল তারা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সে কাজ না করতে পাড়ায় তাদেরকে বাদ দিয়ে নতুন করে টেন্ডারের মাধ্যমে ঠিকাদার নিয়োগের পক্রিয়া চলছে। তিনি আরও জানান, তাড়াশ-নওগাঁ ১২ কি:মি: রাস্তা মেরামতের বাজেট ছিল মোট ৭ কোটি ৫৬ লাখ ৮৮ হাজার ৬শ’ ৬ টাকা। এ ব্যপারে ৫নং নওগাঁ ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মিজানুর রহমান মজনু বলেন, তাড়াশ-নওগাঁ ১২ কিঃমিঃ এই রাস্তা অত্যন্তগুরুত্বপূর্ণ একটি রাস্তা।

এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন শত শত বিভিন্ন মালবাহী পণ্য গাড়ি ও হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। রাস্তাটি অতিদ্রুত মেরামত করা দরকার। যদি এই রাস্তাটি অতিদ্রুত মেরামত করা না হয় তাহলে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনা ঘটতেই থাকবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষে কামনা করেছেন অত্র-এলাকাবাসি।

  • 33
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে