মেডিকেলে চান্স পাওয়া মুন্নীর পাশে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়

প্রকাশিত: এপ্রিল ১০, ২০২১; সময়: ৩:০৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুজানগর : গণমাধ্যমে খবর প্রকাশের পর নিষ্ঠুর দারিদ্রকে জয় করে মেডিকেল কলেজে চান্স পাওয়া পাবনার সুজানগরের জান্নাতুম মৌমিতা মুন্নীর দু:খ ঘুঁচতে বসেছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় তার মেডিকেল কলেজে ভর্তির ব্যবস্থা করেছেন। পাবনার জেলা প্রশাসক মুন্নীর বাবার ঋণ করে কেনা ভ্যানের টাকা পরিশোধের ব্যবস্থা করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন ব্যক্তি, সংগঠন এবং প্রতিষ্ঠান মুন্নীর পড়াশুর্না সব ব্যবস্থা নিতে এগিয়ে এসেছেন।

মঙ্গলবার ‘মেডিকেলে চান্স পেয়েও ভর্তি নিয়ে দু:শ্চিন্তায় মুন্নী’ শিরোনামে গণমাধ্যমে একটি মানবিক স্টোরি ছাপা হলে তা প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়সহ বিভিন্ন ব্যক্তি, সংগঠন এবং প্রতিষ্ঠানের মর্ম স্পর্শ করে। প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশনা পেয়ে পাবনার জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ মুন্নী ও তার পরিবারকে তার দপ্তরে ডেকে পাঠান। এ সময় জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ মুন্নী ও তার বাবাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। জেলা প্রশাসক প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ে যোগাযোগ করে আনুষ্ঠানিকতার জন্য মুন্নীর কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাঠিয়ে দেন।

এছাড়া তিনি ব্যক্তিগতভাবে মুন্নীর পিতা বাকী বিল্লাহর ভ্যান কেনা বাবদ ঋণের টাকা পরিশোধের জন্য ২০ হাজার টাকা নগদ প্রদান করেন। এ সময় দৈনিক যুগান্তরের পাবনা প্রতিনিধি আখতারুজ্জামান , সুজানগর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক যুগান্তরের প্রতিনিধি আব্দুল আলীম রিপন, মুন্নীর চাচা জিয়া ও মমিন উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে জাতীয় সংসদের হুইপ এবং দিনাজপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইকবালুর রহিম মুন্নীর এমবিবিএস পাশ করা পর্যন্ত যাবতীয় ব্যয় বহন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। উল্লেখ্য মেডিকেল কলেজের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস কোর্সের প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় মেধাক্রমে ৩১১০তম হয়ে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ দিনাজপুরে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন সুজানগরের হতদরিদ্র ভ্যান চালকের মেয়ে মোছা.জান্নাতুম মৌমিতা মুন্নী। তিনি পাবনা মেডিকেল কলেজ কেন্দ্র থেকে পরীক্ষায় অংশ নেন।

ভর্তি পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে তিনি পেয়েছেন ৬৯.৭৫ নম্বর। মুন্নী পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার তাঁতীবন্দ ইউনিয়নের উদয়পুর গ্রামের বাকী বিল্লাহ ও মোছা.রওশন আরা খাতুনের মেয়ে। মুন্নী সুজানগর পোড়াডাঙ্গা হাজী এজেম আলী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। এদিকে মুন্নীর দরিদ্র পরিবারের জন্য কেউ সাহায্য পাঠাতে চাইলে মুন্নীর শিক্ষা হিসাব নম্বর ৮৭৬, (ইসলামী ব্যাংক) এ যোগাযোগ করতে পারেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে