আলোচিত রুমি হত্যার প্ররোচনাকারীদের শাস্তির দাবি

প্রকাশিত: এপ্রিল ৬, ২০২১; সময়: ৭:৫৩ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, কচুয়া : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার পালাখাল গ্রামের লন্ডনী বাড়ির অধিবাসী সুলতান মিয়ার স্ত্রী তিন সন্তানের জননী আলোচিত রুমি বেগমের বিষপানে আত্মহত্যা প্ররোচনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তার পরিবার।

সোমবার স্থানীয় সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে গেলে রুমি বেগম হত্যার সাথে জড়িত ও প্ররোচনাকারীদের দ্রুত শাস্তির দাবি জানান তার পরিবার।

এসময় তার মা মনোয়ারা বেগম বলেন, আমার মেয়ে কখনো বিষপান করতে পারে না। তাকে বিষপানে বাধ্য করেছে স্বামী ও আসামীরা। আমি আমার মেয়ে হত্যার ন্যায় বিচার চাই। এসময় তিনি তার মেয়ে হারানোর বেদনায় এবং অবুঝ তিন নাতি-নাতনির ভবিষ্যতের কথা ভেবে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

রুমির ভাই সুমন মিয়া জানান, ঘটনার দিন শনিবার আমার বোন আমাদের বাড়িতে ছিল। বিকালে তাকে খবর দিয়ে নিয়ে বাড়িতে ডেকে নেয় শ্বশুর বাড়ির লোকজন। সেখানে পৌঁছে রুমি দেখেন বাড়ির লোকজন তুচ্ছ বিষয় নিয়ে তার বিরুদ্ধে সালিশ বৈঠকের আয়োজন করেছে।
ওই বৈঠকে চাচা শ^শুর আব্দুল করিমের কাছে ক্ষমা চাইতে বললে রুমি বেগম ক্ষমা না চাওয়ায় তাকে চরম অপমান-অপদস্ত ও মারধর করা হয়। অপমানিত হয়ে সেই রাতে রুমি বিষপানে আত্মহত্যা করেন বলে সুমন মিয়া দাবি করেন।

তিনি আরো বলেন, আমার বোনকে যারা আত্মহত্যায় বাধ্য করেছে আমি তাদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। এসময় তিনি দ্রুত আসামীদের গ্রেফতার করতে এবং রহস্য উদঘাটনে পুলিশ প্রশাসন ও সাংবাদিকদের সহযোগিতা চেয়েছেন।

কচুয়া থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন বলেন, বাদীর মতামত অনুসারে তিনজনকে আসামী করা হয়েছে। এদের মধ্যে ভিকটিমের স্বামী সুলতান মিয়াকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে