বাগাতিপাড়ায় মা-ছেলেকে মারপিট, আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ

প্রকাশিত: মার্চ ২৭, ২০২১; সময়: ১০:০৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : জমিজমার বিরোধের জেরে মমতা বেগম (৫০) এবং তার ছেলে মুর্শিদ হোসেন (৩২)কে মারপিট করে আহত করার অভিযোগ উঠেছে নাটোরের বাগাতিপাড়ায় মজিবর রহমান মজির (৪৬) নামে এক আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে। শুক্রবার (২৬ মার্চ) উপজেলার তকিনগর মধ্যপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত মা -ছেলেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়।

এদিকে মারপিটের শিকার ওই মা ও ছেলের অভিভাবক ছইমুদ্দিন বাদি হয়ে আওয়ামীলীগ নেতা মজিবর সহ তার স্ত্রী ছাবিনা খাতুন,ছেলে শিশির হোসেন শিবলু ও শ্যালক উমাইল হোসেনকে অভিযুক্ত করে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযুক্ত মজিবর রহমান মজির উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং অভিযোগকারী ছইমুদ্দিনের ছোট ভাই।

পুলিশ ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পৈত্রিক সম্পত্তির অংশ নিয়ে দুই ভাই ছইমুদ্দিন এবং মজিরের মধ্যে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে ছইমুদ্দির অনুপস্থিতিতে শুক্রবার সকালে তার স্ত্রী মমতা ও ছেলে মুর্শেদের সাথে মজিবর এবং তার স্ত্রী ছাবিনার কথা কাটাকাটির শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে মা ও ছেলের (মমতা-মুর্শিদ) ওপর চড়াও হয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করে অভিযুক্ত মজির, শিবলু, ছাবিনা এবং উমাইল। মারপিটের সময় মজিবর রহমান মজিরের হতে থাকা হাঁসুয়ার আঘাতে ছইমুদ্দির স্ত্রী মমতার মাথার উপরে জখম হয় এবং অন্যরা মুর্শিদকে মাটিতে ফেলে এলোপাতাড়ি মারপিট করে আহত করে। সেসময় তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে তাদের উদ্ধার করে বাগাতিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। মমতার মাথার জখমে ৫॥৭ টা সেলাই লেগেছে, বর্তমানে তারা সেখানেই চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মহসিন।

অভিযুক্ত আ’লীগ নেতা মজিবরের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট বলে দাবি করে বলেন, সাথে তার কিছুই হয়নি এবং সে বা তার পরিবারের লোকজন কাউকেই মারধর করেনি।

বাগাতিপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি নাজমুল হক জানান, উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের তকিনগর গ্রামে মারপিটের ঘটনায় একটি লিখত অভিযোগ শুক্রবার রাতে তিনি হাতে পেয়েছেন। তদন্ত করে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে