নওগাঁয় সমন্বিত পরিকল্পনা প্রণয়ন সভা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১; সময়: ২:৪৬ pm |

জেষ্ঠ্য প্রতিবেদক, নওগাঁ : গ্রাম আদালত সম্পর্কে ব্যাপক জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নওগাঁয় স্থানীয় সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সমূহের অংশগ্রহনে সমন্বিত পরিকল্পনা প্রনয়ন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকাল ১০ টা থেকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সভা শুরু হয়।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন নওগাঁর জেলা প্রশাসক মো: হারুন-অর রশীদ। সভাপতিত্ব করেন নওগাঁ স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক (ডিডিএলজি) গোলাম মো: শাহনেওয়াজ। বিশেষ অতিথি হিসেবে সভায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিহাব রায়হান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মামুন খান চিস্তি। সভার মূল বিষয়বস্তু উপস্থাপন করেন ইউএনডিপির প্রতিনিধি মো: শরীফুল ইসলাম।

বাংলাদেশ গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় সরকার বিভাগ এই সভার আয়োজন করে। বাংলাদেশ সরকার, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও ইউএনডিপির সহযোগিতায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্থানীয় সরকার বিভাগ এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

সভায় বক্তারা বলেন, গ্রাম আদালত সক্রিয় হলে বিচারিক আদালতে মামলার চাপ কমে। একইসাথে বিরোধী উভয় পক্ষই আর্থিক ব্যয় ও হয়রানী থেকে রক্ষা পায়। তাই সামাজিক বিভিন্ন এখতিয়ার ভূক্ত বিরোধ সমূহ গ্রাম আদালতে নিষ্পত্তির উপড় গুরুত্বারোপ করেন তারা।

অনুষ্ঠানে নওগাঁ জেলার ৬ উপজেলার ৪৯ টি ইউনিয়ন বা প্রকল্পভূক্ত এলাকায় গ্রাম আদালতের অর্জন সমূহ তুলে ধরা হয়। এছাড়া গ্রাম আদালতের চেয়ারম্যান ও উপকারভোগীর অভিজ্ঞতা উপস্থাপন, তথ্য ভিত্তিক ভিডিও চিত্রের মাধ্যমে প্রকল্পের নিয়ম কানুন তুলে ধরা হয়। সভায় সরকারী ও বেসরকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, গণমাধ্যম কর্মি অংশনেন। অংশগ্রহনকারীদের আলোচনা ও মতামতের ভিত্তিতে গ্রাম আদালত সম্পর্কে ব্যাপক জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে খসড়া পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০১৭ সালের জুলাই থেকে ২০২১ সালের জানুয়ারী সময় পর্যন্ত নওগাঁ জেলায় গ্রাম আদালতে মোট মামলা হয়েছে ১৫ হাজার ৩৬৭ টি। এরমধ্যে নারী আবেদনকারী ৩০ দশমিক ৯৩ ভাগ ও পুরুষ আবেদনকারী ৬৯ দশমিক ১৪ ভাগ। প্যানেল সদস্য হিসেবে নারীর অংশগ্রহন ১৬ দশমিক ১৯ ভাগ। জেলায় মামলা নিষ্পত্তির মাধ্যমে ক্ষতিপূরন আদায় হয়েছে ৮ কোটি ৪৯ লাখ ৯৪ হাজার ১৮৪ টাকা।

প্রকল্পের শুরু থেকে মামলার সংখ্যাগত দিক থেকে প্রকল্প ভূক্ত ২৭ টি জেলার মধ্যে নওগাঁ জেলা প্রথম স্থান অর্জন করেছে। মামলা নিষ্পত্তির জন্য ২০১৭ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত নওগাঁ জেলা প্রশাসক ২১ বার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে ধন্যবাদপত্র পেয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে