একটি বটগাছ, একটি মৃত্যু ফাঁদ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৩, ২০২১; সময়: ২:২৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, নিয়ামতপুর : একটি বটগাছ, একটি মৃত্যু ফাঁদ। নিয়ামতপুর উপজেলার পাড়ইল ইউনিয়নের পৈলানপুর মোড়। রাজবাড়ী-খড়িবাড়ী পাকা রাস্তায় পৈলানপুর মোড়ে রাস্তার ধারে পোকা খাওয়া একটি বটগাছ কালের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। সেখানে রয়েছে একটি ছোট স্টল। গ্রামের সাধারণ মানুষ অবসর সময়ে সেই স্টলে বসে চা পান করেন আর সময় কাটান। পোকা খাওয়া ঐ বটগাছটি ভেঙ্গে যে কোন মুর্হুতে ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

কথা হয় স্টলের মালিক পৈলানপুর গ্রামের আমেজ উদ্দিনের ছেলে মোজাম্মেল হক সন্টুর সাথে। তিনি বলেন, আমি ভয় নিয়ে স্টল চালাই। বটগাছটি ভেঙ্গে যে কোন মূর্হুতে বড় রকমের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। আমি প্রায়৬ মাস আগে বটগাছটি অপসারনের জন্য উপজেলায় আবেদন দিয়েছি। তারা দেখেও গেছে। কিন্তু আজ পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা গ্রহন করে নাই।

গাছটি পোকা খেয়ে দিন দিন আরো নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। রাস্তার ধারে গাছটি থাকায় শুধু আমার স্টলে আসা মানুষের না রাস্তায় যাতায়াতের মানুষের বড় রকমের ক্ষতি হতে পারে। তাই আমি মিডিয়ার মাধ্যমে আবারো জোর দাবী জানাচ্ছি গাছটি অপসারন করে দূর্ঘটনার হাত থেকে আমাদের মুক্তি দিন।

পৈলানপুর গ্রামবাসীর দাবী অবিলম্বে বটগাছটি অপসারন করে আমাদের মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করুন। তাছাড়া বটগাছ বা তার ডালপালা ভেঙ্গে যে কোন মূর্হুতে আমাদের বড় রকমের ক্ষতি হতে পারে।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, আমার কাছে কোন আবেদন জমা পড়ে নাই। রাস্তা আমাদের হলেও রাস্তার পাশের গাছ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহনের মালিক উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্যার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) স্যারের। তারপরেও উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্যারের মাধ্যমে বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

  • 37
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে