কুষ্টিয়ায় কাউন্সিলর ও তার সমর্থকদের হামলায় প্রতিপক্ষের নিহত ১

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৬, ২০২০; সময়: ৪:৩৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শহরের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম রবি ও তার সমর্থকদের হামলায় একজন নিহত ও কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। নিহত ব্যাক্তির নাম সোহেল সরকার (৫০)। আহতদের মধ্যে দুইজনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানিয়েছে, শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী মাহবুবর রহমান পাখি, তার ভাই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা রমজান ও সমর্থক সোহেল সরকারসহ অন্যরা ত্রিমহোনী বটতলা মোড়ে প্রচারনা চালানোর কাজ করছিল। এসময় বর্তমান কাউন্সিলর ও প্রার্থী রবিউল ইসলাম রবি দলবল নিয়ে অচমকা পাখি ও তার ভাইয়ের উপর হামলা চালায়। এ সময় সোহেল বাঁধা দিলে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় রবি ও তার লোকজন। ধাক্কায় মাটিতে পড়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন সোহেল। হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। এদিকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে পাখির ভাই মাজহারুল ইসলাম রমজান ও মোস্থাফিজুর রহমান।

কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রাতে দুই প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষে ধস্তাধস্তির সময় হার্ট অ্যাটাক করে একজন মারা গেছে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা হচ্ছে। সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে।

কাউন্সিলর প্রাথী মাহবুবুর রহমান পাখি বলেন, রবি ও তার লোকজন আমার ভাই ও সমর্থকদের উপর হামলা চালিয়ে তাদের আহত করেছে। সোহেলকে সে ধাক্কা মেরে ফেল দেয় মাটিতে। তার আগে থেকে হার্টের সমস্যা ছিল।এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

আর বর্তমান কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম রবি বলেন,‘ আমি ও আমার লোকজন এ ঘটনায় জড়িত নয়। সোহেল আমার বন্ধু। ঘটনার সময় সে সেখানে থাকলেও তার উপর কোন হামলা হয়নি। পাখির লোকজন আমাকে আটকানোর চেষ্টা করলে এ সংঘর্ষ হয়।’

  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে