বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুরাও সমাজের সম্পদ: সানজিদা ইয়াসমিন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১, ২০২০; সময়: ৯:০৮ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুজানগর : বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুরাও সমাজের সম্পদ। উপযুক্ত পরিচর্যা ও প্রশিক্ষণ পেলে এরা দেশ ও জাতির উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারে বলে জানিয়েছেন আবুল কাশেম ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সানজিদা ইয়াসমিন টুম্পা।

মঙ্গলবার সুজানগরের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন (প্রতিবন্ধী) শিশু ও অসহায় দুস্থ মানুষদের মাঝে ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরণের উদ্বোধকালে তিনি বলেন আমাদের যার যার অবস্থান থেকে যথাসাধ্য কাজ করে যেতে হবে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের কল্যাণের জন্য। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বোঝা নয়, সম্পদে পরিণত করতে হবে। ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা বা আত্মকর্মসংস্থানে তাদের সহযোগিতা করা, তাদের পিছনে ইনভেস্টমেন্ট করে তাদের সম্পদে পরিণত করা।

বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের অনেকেই শিক্ষিত আছে তাদের পেছনে সরকারি-বেসরকারিভাবে কিছু অর্থ বিনিয়োগ করলে দেশ অনেক কিছু পেতে পারে বলেও জানান তিনি। ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীনের সহধর্মিনী সানজিদা ইয়াসমিন টুম্পা আরো বলেন সুজানগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রয়াত আবুল কাশেম এর স্মরণে প্রতিষ্ঠিত এই ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে অতীতেও অসহায় মানুষদের মাঝে নতুন কাপড়, শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

অসহায় মানুষেরা শীতবস্ত্রের অভাবে অনেক কষ্টে রাত কাটায়। শীতে করোনার প্রার্দুভাব বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই আমরা শীত বস্ত্র বিতরণের মাধ্যমে তাদের শীতের কষ্ট লাঘবের চেষ্টা করে যাচ্ছি। ভবিষ্যতেও এ ধরণের কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে এ কাজের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখা ও মানবসেবায় নিয়োজিত থাকার প্রয়াসও ব্যক্ত করেন তিনি। এদিকে বিশ্বের অন্যতম ত্রাস করোনাভাইরাসের কারণে সমগ্র বিশ্ব এখন অর্থনৈতিক সমস্যায়। আর এর বাইরে নয় বাংলাদেশ। প্রতিনিয়ত বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। মানুষেরা রয়েছে মহা বিপদে। বিশেষ করে নিম্ন আয়ের ও দিনমজুর মানুষেরা পড়েছেন মহা সংকটে। তবে সবাইকে ছাড়িয়ে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি কিংবা তাদের পরিবার পড়েছে অথৈ জলে। তাদের ভোগান্তি ছাড়িয়ে গেছে অতীতের সব সীমা।

করোনার কারণে সৃষ্ট এমন এক বাস্তবতার এই সময়ে সুজানগরের বিশেষ চাহিদা সম্পন ্ন(প্রতিবন্ধী) শিশু ও অসহায় মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করায় আবুল কাশেম ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সানজিদা ইয়াসমিন টুম্পার মহৎ এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন প্রশাসনের কর্মকর্তা ও সুজানগরের সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। সুজানগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রওশন আলী এ ধরণের কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন বর্তমান ও অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও এই ধরণের সহায়তা কার্যক্রম ফাউন্ডেশনটি অব্যাহত রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উল্লেখ্য প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই আবুল কাশেম ফাউন্ডেশন সুজানগর উপজেলার অসহায় ও দুস্থ মানুষদের সহযোগিতার পাশাপাশি বিভিন্ন সমাজসচেতনতা মূলক কাজ করে আসছে ।

 

  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে