‘করোনা আর নয় ভয়, সচেতন হয়ে করোনা করবো পরাজয়’

প্রকাশিত: ৩০-০৫-২০২০, সময়: ১৬:৫১ |
Share This

রাজিউর রহমান রুমী, পাবনা : ‘করোনা আর নয় ভয়, সচেতন হয়ে করোনা করবো পরাজয়’ পাবনার চাটমোহরে সাধারণ মানুষকে করোনা সচেতনতায় ব্যাতিক্রম ধর্মী উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেছে নাগরিক সাংবাদিকতার প্রথম ধারণা ফেসবুক গ্রুপপ ‘চেতনায় চাটমোহর’ । তারা করোনা সচেতনতায় শহরের সড়কে চিত্রাংকন কর্মসূচী পালন শুরু করেছে। করোনাভাইরাস সম্পর্কে পথচলা মানুষকে সচেতন করার অংশ হিসেবে এই কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে।

গত দুইদিন ধরে চাটমোহর পৌর সদরের জিরো পয়েন্ট ও জারদিস মোড়ে করোনাভাইরাস সচেতনতায় রাস্তায় ছবি আঁকার মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়। এ সময় বিভিন্ন ব্যক্তি, সংগঠন ও শিশু-কিশোর এই কর্মসূচীতে একাত্ততা প্রকাশ করে নিজেদের হাতের ছাপ রেখে যান চিত্রাংকনে অংশ নিয়ে। আগামী কয়েকদিন এই কর্মসূচি চলবে বলে আয়োজকরা জানান।

অংশগ্রহণ কারীরা বলেন, করোনা একটি বৈশ্বিক মহামারী। এটি একটি মারত্মক ছোয়াঁছে রোগ। রোগটির ফলে বাংলাদেশ সহ পৃথিবীতে বেদনা দায়ক মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। যদিও বাংলাদেশে এই রোগে মৃত্যুহার এখন পর্যন্ত বেশ নগন্য। যেহেতু করোনার কোন ভ্যাকসিন নাই এমনকি সুনির্দিষ্ট কোন চিকিৎসাও নাই কাজেই আতংকিত না হয়ে সচেতনতা এবং সাবধানতা একমাত্র এই করোনা সংক্রমণ থেকে আমাদের রক্ষা করতে পারে । তাই আমরা এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেছি।

এই গণসচেতনতামূলক কার্যক্রমে উপস্থিত থেকে উৎসাহ যোগান চাটমোহর সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার সজীব শাহরীন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ইকতেখারুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য হেলাল উদ্দিন ও সাইদুল ইসলাম পলাশ, বড়াল রক্ষা আন্দোলনের সদস্য সচিব এস এম মিজানুর রহমান, চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি কে এম বেলাল হোসেন স্বপন, সহ-সভাপতি শেখ জিয়ারুল হক সিন্টু, অরবিটল লিংক স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালক আব্দুল মতিন, চিত্রশিল্পী মিলন রব সহ অনেকে।

এছাড়া বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মধ্যে Foundation of Humanity, তারুণ্যের আলো, We are Anthill, বিডি ক্লিন-চাটমোহর ও স্বপ্ন পক্ষ’র কর্মীরা অংশগ্রহণ করেন এই কর্মসূচী বাস্তবায়নে। সেইসাথে বেশকিছু শিশু-কিশোর শিক্ষার্থী স্বত:স্ফূর্তভাবে এই ছবি আাঁকায় অংশ নেন। আর পুরো কর্মসূচী সমন্বয় করেন অংকন শিক্ষক মানিক দাস।

এ বিষয়ে চেতনায় চাটমোহরের অ্যাডমিন জেমান আসাদ জানান, মানুষ অপ্রয়োজনে পথে বের হচ্ছেন। মুখে মাস্ক থাকছে না, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছেন না। তাই পথচারীদের জন্য পথেই আমরা ছড়িয়ে দিতে চাই সচেতনতার বার্তা। এ উদ্দেশ্যেই সড়ক সচেতনতার এই উদ্যোগ গ্রহণ। পথ চলতে চলতে মানুষ এই ছবি দেখে যেন নিজেকে অনুভব করেন। প্রাথমিকভাবে চাটমোহর পৌর সদরের পাঁচটি পয়েন্টে এই ছবি আঁকার কাজ করা হবে।

কর্মসূচীর সমন্বয়ক অংকন শিক্ষক মানিক দাস বলেন, সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনগুলো বিভিন্নভাবে মানুষকে সচেতন করার কাজ করে যাচ্ছে। তারপরও মানুষের মাঝে সচেতনতার বড় অভাব। সেকারণে চেতনায় চাটমোহর যে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে তা সত্যি প্রশংসার দাবিদার। আমরা চাই পথে চলা মানুষ আমাদের ছবি দেখে সচেতন হবেন, কিংবা সচেতন হওয়ার তাগাদা অনুভব করবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে